সিটি করপোরেশন হলো ময়মনসিংহ

সিটি করপোরেশন হলো ময়মনসিংহ

দেশের অষ্টম বিভাগ হিসেবে যাত্রা করার পর এবার ময়মনসিংহ পৌরসভাকে ‘সিটি করপোরেশন’ করার প্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছে প্রশাসনিক পুনর্বিন্যাস সংক্রান্ত জাতীয় বাস্তবায়ন কমিটি (নিকার)।

সোমবার (০২ এপ্রিল) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত নিকার সভায় এ সংক্রান্ত প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। সভায় সভাপতিত্ব করেন কমিটির আহ্বায়ক প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
 
বৈঠক শেষে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব (সমন্বয় ও সংস্কার) এনএম জিয়াউল আলম সাংবাদিকদের একথা জানান।

সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ময়মনসিংহ সদর উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নের মধ্যে বয়ড়া ও আকুয়া সম্পূর্ণ এবং খাগডহর, চর ঈশ্বরদিয়া, দাপুনিয়া, ভাবখালী, সিরতা ও চর নিলক্ষীয়ার আংশিক পল্লী এলাকাকে পৌরসভার অন্তর্ভুক্ত করে সিটি করপোরেশন এলাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।
 
৯১ দশমিক ৩১৫ বর্গ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে এই সিটি করপোরেশন গঠিত হবে। জনসংখ্যার ঘনত্ব হবে প্রতি বর্গ কিলোমিটারে ৫ হাজার ১৬৭ জন। সিটি করপোরেশন গঠিত হলে জনসংখ্যা হবে ৪ লাখ ৭১ হাজার ৮৫৮ জন।
 
সিটি করপোরেশন করতে যে আটটি ক্রাইটেরিয়া প্রয়োজন সেগুলো বিবেচনা করে এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানান সচিব।
 
লালমাই উপজেলা সদরের দফতর ফতেপুরে
সভায় কুমিল্লা জেলার নবসৃষ্ট লালমাই উপজেলার সদর দফতর স্থাপনের স্থান পরিবর্তনের প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব বলেন, আগে প্রস্তাবিত স্থানটি ছিল ৪৭ নম্বর জয়ানগর মৌজায়। বর্তমানে ৩৬ নম্বর উত্তর ফতেপুর মৌজার প্রস্তাবটি অনুমোদিত হয়েছে।
 
স্থান পরিবর্তনের যুক্তি হিসেবে তিনি বলেন, ৪৭ নম্বর জয়ানগর মৌজায় কৃষি জমি ছিল এবং প্রধান সড়ক থেকে দূরত্ব ছিল তিন কিলোমিটার। যেটি অনুমোদিত হয়েছে সেটি রাস্তার কাছে ও ইটভাটার অকৃষি জমি।

ছয় একর জমিতে উপজেলা সদর দফতর স্থাপিত হবে বলে জানান সচিব।