মাদকবিরোধী অভিযানে চাঁদপুরে নিহত ১

মাদকবিরোধী অভিযানে চাঁদপুরে নিহত ১

চাঁদপুরের সদর উপজেলায় মাদকবিরোধী অভিযানে পুলিশের গুলিতে একজন নিহত হয়েছেন। উপজেলার পুরানবাজারের পূর্ব শ্রীরাদী এলাকায় বালুর মাঠে বুধবার গভীর রাতে গোলাগুলির এ ঘটনা ঘটে বলে চাঁদপুর সদর মডেল থানার ওসি ওয়ালী উল্যহ জানান।

নিহত ইউনুস পুরানবাজারের মধ্য শ্রীরামদী এলাকার আব্দুল মজিদ মিজির ছেলে। তার বিরুদ্ধে চাঁদপুরসহ বিভিন্ন থানায় মাদক আইনের আটটি মামলা রয়েছে বলে পুলিশের ভাষ্য।

ওসি বলেন, পূর্ব শ্রীরাদী এলাকায় বালুর মাঠে মাদকের একটি বড় চালান যাওয়ার খবরে সেখানে অভিযান চালায় পুলিশ।

“এ সময় মাদক ব্যবসায়ীরা পুলিশকে লক্ষ করে গুলি ছোড়ে। পুলিশ পাল্টা গুলি করলে ইউনুস গুলিবিদ্ধ হয়।”

চাঁদপুর সদর হাসপাতালে নেওয়া হলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক ইউনুসকে মৃত ঘোষণা করেন বলে জানান ওসি।

তিনি বলছেন, এই অভিযানে পুলিশের পাঁচ সদস্যও আহত হয়েছেন। ঘটনাস্থল থেকে ১০৩টি ইয়াবা, একটি একনলা বন্দুক, দুই রাউন্ড গুলি, চারটি কার্তুজের খোসা ও দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে।

মে মাসে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সারা দেশে মাদকবিরোধী অভিযান ‍শুরুর পর থেকে অন্তত ১২৯ জন নিহত হয়েছেন, যাদের অধিকাংশের মৃত্যু হয়েছে পুলিশ বা র‌্যাবের গুলিতে।

অভিযানে মৃত্যুর অধিকাংশ ঘটনার ক্ষেত্রে বলা হচ্ছে, মাদক কারবারিরা আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর দিকে গুলি করায় পাল্টা গুলি চালাচ্ছে পুলিশ বা র‌্যাব, তাতে ঘটছে মৃত্যু।

কয়েকটি ক্ষেত্রে গুলিবিদ্ধ লাশ পাওয়ার কথা জানিয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, তাদের মৃত্যু হয়েছে মাদক চোরাকারবারিদের অভ্যন্তরীণ কোন্দলে।

তাদের ওই বক্তব্য ও ঘটনার বিবরণ নিয়ে মানবাধিকার সংগঠনগুলো প্রশ্ন তুলেছে। ইউরোপীয় ইউনিয়ন বন্দুকযুদ্ধে নিহতের প্রতিটি ঘটনার তদন্ত চেয়েছে। আর জাতিসংঘ বলেছে, তারা পরিস্থিতি গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করছে।

তবে সরকারের তরফ থেকে বলা হচ্ছে, দেশ থেকে মাদক নির্মূল না হওয়া পর্যন্ত এই লড়াই চলবে।