বিরলে স্বামী-সতীনের নির্যাতনে নিহত গৃহবধূ গ্রেফতার শ্বশুর

বিরলে স্বামী-সতীনের নির্যাতনে নিহত গৃহবধূ গ্রেফতার শ্বশুর

বিরল (দিনাজপুর) প্রতিনিধি : দিনাজপুরের বিরলে পাষন্ড স্বামী ও সতীনের অমানুষিক নির্যাতনে নিহত গৃহবধূ পারভীন আকতার (৩০) এর শ্বশুর রমজান আলীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গতকাল শুক্রবার দুপুর ১২টায় ধুলাতৈর সিংপাড়া থেকে তাকে গ্রেফতার করে। অপরদিকে পারভীনের লাশের ময়নাতদন্ত শেষে গতকাল সকালে পৈতৃক ভিটার পারিবারিক কবরস্থানে দাফন কাজ সম্পন্ন হয়। পারভীন পলাশবাড়ী ইউনিয়নের গ্রাম্য পুলিশ বাদল হোসেনের মেয়ে।

গত বুধবার সন্ধ্যার দিকে পারভীনের স্বামী উপজেলা ধুলাতৈর গ্রামের সিংড়াপাড়ার রমজান আলীর ছেলে রেজাউল ইসলাম (৩৫) এবং তার দ্বিতীয় স্ত্রী পারভীনের সতীন শিল্পীসহ দুই পরিবারের লোকজন অমানুষিক নির্যাতন চালিয়ে পারভীনকে হত্যা করে। পরে তারাই অপ্রচার চালাতে থাকে যে, পারভীন ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। এসময় এলাকার লোকজন ছুটে এলে বাড়ির লোকজন এবং সতীন শিল্পীর বাড়ির লোকজন বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যায়। পরে সংবাদ পেয়ে পুলিশ পারভীন আকতারের শয়ন ঘরের বর্গার তীরের সাথে গলায় ওড়না  পেচানো ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে।

পর দিন বৃহস্পতিবার সকালে গৃহবধূ পারভীনের লাশ দিনাজপুর এম আবদুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে ময়নাতদন্তের জন্য  প্রেরণ করা হয়। এ ঘটনায় ওই দিনই পারভীন আকতারকে হত্যা করা হয়েছে মর্মে পারভীনের পিতা গ্রাম্য পুলিশ বাদল হোসেন বাদী হয়ে পারভীনের স্বামী-শ্বশুর-সতীনসহ ১০ জনকে আসামি করে বিরল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন ।