বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ সৌদি বাদশাহ গ্রহণ করেছেন: প্রধানমন্ত্রী

বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ সৌদি বাদশাহ গ্রহণ করেছেন: প্রধানমন্ত্রী

সৌদি আরবের বাদশাহ সালমান বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ গ্রহণ করেছেন বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সম্প্রতি সৌদি আরবে চার দিনের সফরের অভিজ্ঞতা জানাতে সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে এসে প্রধানমন্ত্রী এ কথা জানান।

বিকাল ৪টায় গণভবনে এই সংবাদ সম্মেলন শুরু হয়। প্রথমেই প্রধানমন্ত্রী সৌদি আরব সফর নিয়ে বিভিন্ন তথ্য উপস্থাপন শুরু করেন। তিনি বলেন, “সৌদি বাদশাহকে আমন্ত্রণ জানিয়েছি। তিনি আমন্ত্রণ গ্রহণ করেছেন এবং অদূর ভবিষ্যতে তিনি বাংলাদেশে আসবেন বলে আশা প্রকাশ করেছেন।
 
সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানও দুই দেশের সুবিধাজনক সময়ে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ গ্রহণ করেছেন বলে জানান প্রধানমন্ত্রী।

সরকারের মন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের জ্যেষ্ঠ নেতারাও এই সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত রয়েছেন। রাষ্ট্রীয় সম্প্রচার মাধ্যম বাংলাদেশ টেলিভিশন গণভবন থেকে এই সংবাদ সম্মেলন সরাসরি সম্প্রচার করছে।

শেখ হাসিনার সংবাদ সম্মেলনে বরাবরই রাজনৈতিক পরিস্থিতি আলোচনায় আসে। এবারও জ্যেষ্ঠ সাংবাদিকরা বিভিন্ন প্রসঙ্গ তোলেন এবং প্রধানমন্ত্রী সেসব প্রশ্নের উত্তর দেন।

বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ আল সৌদের আমন্ত্রণে চার দিনের সফরে গত মঙ্গলবার সৌদি আরবে যান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই সফরে সৌদি বাদশাহ সালমান এবং যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গে বৈঠক করেন শেখ হাসিনা।

সফরের দ্বিতীয় দিন বুধবার রিয়াদে সৌদি ব্যবসায়ীদের সঙ্গে এক বৈঠকে বাংলাদেশে আরও বিনিয়োগের আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী। ওই দিন দুপুরে তিনি সৌদি বাদশাহ সালমানের সঙ্গে বৈঠক করেন এবং রাজপ্রাসাদে মধ্যাহ্ন ভোজে অংশ নেন।

বাদশাহর সঙ্গে বৈঠকের পর রিয়াদে নিজস্ব জমিতে বাংলাদেশ দূতাবাস ভবনের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী হাসিনা।

বুধবার মদিনায় গিয়ে তিনি মসজিদে নববীতে এশার নামাজ পড়েন এবং মহানবী হজরত মোহাম্মদের (স.) রওজা জিয়ারত করেন।

মদিনা থেকে বৃহস্পতিবার জেদ্দায় পৌঁছে প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেলের চ্যান্সেরি ভবনের ভিত্তিফলক উন্মোচন করেন।

সেদিনই তিনি মক্কায় যান এবং ওমরাহ পালন করেন। সফর শেষে শুক্রবার রাতে দেশে ফেরেন শেখ হাসিনা।