নির্বাচন কমিশনকে ফখরুলের ‌ধন্যবাদ

নির্বাচন কমিশনকে ফখরুলের ‌ধন্যবাদ

 মনোনয়ন বাতিল হওয়া প্রার্থীদের আপিলের মাধ্যমে মনোনয়ন ফিরিয়ে দিয়ে ভোটে অংশগ্রহণের সুযোগ করে দেওয়ায় নির্বাচন কমিশনকে (ইসি) ধন্যবাদ জানিয়েছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেছেন, ‘রিটার্নিং কর্মকর্তারা দলের অসংখ্য নেতাকে নির্বাচনের অযোগ্য করেছিলেন। আজকে আপিলে তারা বৈধ হয়েছেন। এজন্য নির্বাচন কমিশনকে ধন্যবাদ জানাই। ন্যায় বিচার পেলে দলীয় চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াও তার প্রার্থিতা ফিরে পাবেন। আমরা এখনও আশাবাদী।’

বৃহস্পতিবার (০৬ ডিসেম্বর) বিকেলে গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে তিনি এসব কথা বলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘(মনোনয়ন ফিরে পাওয়া) এটাও একটা বিজয়। একইভাবে বিজয়ের মধ্য দিয়ে দেশনেত্রী খালেদা জিয়াকেও মুক্ত করা হবে।’

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে দলীয় প্রার্থীদের মনোনয়নের চূড়ান্ত তালিকা ঘোষণা করার বিষয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, বৃহস্পতিবার রাত ৮টার পর থেকে বিএনপির চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা ঘোষণা শুরু হবে।

‘প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করলে দলে কোন্দল দেখা দেবে’- আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের এমন বক্তব্যের জবাবে মির্জা ফখরুল বলেন, আমি উনার বক্তব্যের জবাব সাধারণত দিতে চাই না। তিনি বলেছিলেন, বিএনপি প্রার্থী দিতে পারবে না, সংকটে পড়বে। কিন্তু কোথায় সংকট? আমরা তো সারা দেশে সাড়ে ৮০০ প্রার্থী দিয়েছি।’

‘বিএনপি ভেঙে সবাই আওয়ামী লীগে যোগ দেবে’- ওবায়দুল কাদেরের এমন বক্তব্যের সমালোচনা করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘এখনও কেউ যায়নি। আওয়ামী লীগ নেতারা ভীত-সন্ত্রস্ত বলেই এ ধরনের প্রলাপ বকছেন।’

তার অভিযোগ, আগামী ৩০ ডিসেম্বর অুনষ্ঠেয় একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের নিরপেক্ষতা নষ্ট করার জন্য প্রশাসন যুক্ত হচ্ছে। আমরা আবারও নির্বাচনের পরিবেশ তৈরি করতে গ্রেফতার বন্ধ করার জন্য কমিশনের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।

এ সময় বিএনপির শীর্ষ নেতারা উপস্থিত ছিলেন।