দশম সংসদের ২০তম অধিবেশন শুরু, চলবে ১২ এপ্রিল পর্যন্ত

দশম সংসদের ২০তম অধিবেশন শুরু, চলবে ১২ এপ্রিল পর্যন্ত

সংসদ রিপোর্টার : দশম জাতীয় সংসদের ২০তম অধিবেশন শুরু হয়েছে, যা এ বছরের দ্বিতীয় অধিবেশন।  রোববার বিকাল পাঁচটায় স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অধিবেশন শুরু হয়। অধিবেশনের শুরুতে স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী সবাইকে স্বাগত জানান। এসময় স্পিকার বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানান।

পরে স্পিকার চলতি অধিবেশনের সভাপতিমণ্ডলী মনোনয়ন দেন। স্পিকার বা ডেপুটি স্পিকারের অনুপস্থিতিতে সভাপতিমণ্ডলীর সদস্যদের মধ্যে অগ্রবর্তীজন সংসদ পরিচালনা করবেন। সংসদের চলমান অধিবেশনে সভাপতিমণ্ডলীর সদস্যরা হলেন- আব্দুর রাজ্জাক, আব্দুল কুদ্দুস, আবদুল মজিদ খান, জিয়াউল হক মৃধা ও নাভানা আক্তার। এরপর স্পিকার সাবেক সংসদ সদস্য এম মতিউর রহমান, আমান উল্লাহ খান, মোহাম্মদ ইউসুফ, সরফুদ্দিন আহমেদ ঝন্টু, আবদুর রব চৌধুরী, মো. মোজাহার আলী প্রধান, একেএম খায়রুজ্জামান এবং খন্দকার মফিজুর রহমানের মৃত্যুতে শোক প্রস্তাব উস্থাপন করেন। এছাড়া তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা ধীরাজ কুমার নাথ, মুক্তিযোদ্ধা ও ভাস্কর ফেরদৌসী প্রিয়ভাষিণী, আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের মা, বেগম ফজিলাতুল নেসা, পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের মা সায়েরা খাতুন, বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহচর ও চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক মো. ছৈয়দুর রহমান, কথাসাহিত্যিক শওকত আলী, ভাষা সৈনিক গাজী শহীদুল্লাহ, মুক্তিযোদ্ধা কাঁকন বিবি, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য এএসএম জাকারিয়া স্বপন এবং কণ্ঠশিল্পী শাম্মী আখতারের মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করা হয়।

নেপালে বিমান বিধ্বস্ত, মালিতে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা বাহিনীতে নিয়োজিত বাংলাদেশি সেনা সদস্য, রাশিয়ার শপিংমলে অগ্নিকাণ্ড এবং দেশ-বিদেশের বিভিন্ন স্থানে দুর্ঘটনায় নিহতদের স্মরণেও শোক করা হয়। পরে মৃতদের আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া এবং এক মিনিট নীরবতা পালন ও মোনাজাত করা হয়। মোনাজাত পরিচালনা করেন সংসদ সদস্য ফরিদুল হক খান। সংসদের শুরু হওয়া অধিবেশন আগামী ১২ এপ্রিল পর্যন্ত চালানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সংসদের কার্য-উপদেষ্টা কমিটি। অধিবেশন শুরুর আগের স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে কমিটির বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত হয়। সংসদ সচিবালয়ে থেকে জানানো হয়, প্রতিদিন বিকাল পাঁচটায় সংসদের বৈঠক বসবে।

প্রয়োজনে অধিবেশনের সময়সীমা স্পিকার বাড়াতে বা কমাতে পারবেন বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় বৈঠকে। কমিটি সদস্য এবং সংসদ নেতা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৈঠকে অংশ নেন। বৈঠকে কমিটির সদস্য বিরোধীদলীয় নেতা রওশন এরশাদ, হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ, তোফায়েল আহমেদ, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, আবুল হাসানাত আব্দুল্লাহ, রাশেদ খান মেনন, আ স ম ফিরোজ, মইন উদ্দীন খান বাদল এবং আনিসুল হকও বৈঠকে অংশ নেন।