গেন্ডারিয়ায় পরিত্যক্ত ব্যাগের ভেতরে নবজাতক

গেন্ডারিয়ায় পরিত্যক্ত ব্যাগের ভেতরে নবজাতক

স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানীর গেন্ডারিয়া থানার স্বামীবাগে একটি বাসার সামনে কাপড়ের ব্যাগের ভেতর থেকে এক নবজাতক ছেলেকে উদ্ধার করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার সকালের দিকে নবজাতকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। স্বামীবাগের বাসিন্দা রোমানা আক্তার জানান, গেন্ডারিয়া থানার স্বামীবাগে একটি বাসার সামনে পরিত্যক্ত জায়গায় হলুদ ও নেভি ব্লু  রঙের কাপড়ের ব্যাগের ভেতরে নড়াচড়া করতে দেখে প্রতিবেশিরা তাকে খবর দেয়। তিনি প্রথমে মনে করেছিলেন বিড়ালের বাচ্চা। কাপড়ের ব্যাগটি খুলে তিনি দেখতে পান একটি নবজাতক ছেলে।

তিনি নবজাতকে দেখেই দ্রুত আশেপাশের লোকজনের সহযোগিতায় তাকে উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালের ২১১ নম্বর নবজাতক ওয়ার্ডে ভর্তি করেন। নবজাতক ওয়ার্ডের চিকিৎসকের বরাত দিয়ে তিনি জানান, নবজাতকের ওজন ৭৯০ গ্রাম। ধারণা করা হচ্ছে পেটের ভেতরে ২২ থেকে ২৪ সপ্তাহ হওয়ার পর কোনো ক্লিনিকে গর্ভপাত ঘটানো হয়েছে। নবজাতকের নাভিতে ক্লিপ লাগানো  ছিল। চিকিৎসকরা তাকে জানিয়েছেন নবজাতকের মাথায় আঘাতের চিহ্ন আছে। নবজাতকের অবস্থা গুরুতর বলেও জানান রোমানা। গেন্ডারিয়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী মিজানুর রহমান  জানান, স্থানীয়রা ব্যাগের ভেতর থেকে ওই নবজাতককে উদ্ধার করে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করেছেন। নবজাতকের অবস্থা ভালো না আমরা জানতে পেরেছি। সিসি ক্যামেরা দেখে নবজাতকটি কারা ফেলে গেছে তা শনাক্তের চেষ্টা চলছে।