এএফসি কাপে বাংলাদেশ দলের স্পন্সর ওয়ালটন গ্রুপ

এএফসি কাপে বাংলাদেশ দলের স্পন্সর ওয়ালটন গ্রুপ

ক্রীড়া প্রতিবেদক :

 এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপ-২০১৯ এর বাছাইপর্বে বাংলাদেশ রয়েছে ‘এফ’ গ্রুপে। আর এই গ্রুপের খেলা অনুষ্ঠিত হবে কমলাপুরের বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে। ১৫ থেকে ২৩ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এখানে লড়বে এই গ্রুপের পাঁচটি দল। যথারীতি এএফসি কাপের বাছাইপর্বে বাংলাদেশের টিম স্পন্সর হয়েছে ক্রীড়াবান্ধব প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন গ্রুপ।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সদস্য, মহিলা উইং এর চেয়ারম্যান এবং ফিফার নির্বাচিত সদস্য মিস মাহফুজা আক্তার কিরণ। তিনি রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘১৫ তারিখ থেকে এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের বাছাইপর্ব শুরু হবে। এই প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশ দলের টিম স্পন্সর হিসেবে আছে ওয়ালটন গ্রুপ। তারা শুরু থেকেই মেয়েদের ফুটবলের সঙ্গে আছে। যেকোনো টুর্নামেন্ট ও সফরে তারা আমাদের পাশে থাকছে। সে জন্য তাদের ধন্যবাদ জানাই। তাদের সঙ্গে আমাদের এই সম্পর্ক আশা করি ভবিষ্যতেও অটুট থাকবে।’

পৃষ্ঠপোষকতা করার বিষয়ে ওয়ালটন গ্রুপের সিনিয়র অপারেটিভ ডিরেক্টর (গেমস অ্যান্ড স্পোর্টস) এফএম ইকবাল বিন আনোয়ার (ডন) বলেন, ‘মেয়েদের ফুটবলের সঙ্গে আমরা শুরু থেকেই আছি। মেয়েদের ফুটবলকে এগিয়ে নিতে আমরা নিয়মিত তাদের সঙ্গে সম্পৃক্ত হচ্ছি। এবার ঘরের মাঠে শুরু হতে যাওয়া এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের বাছাইপর্বেও আমরা মেয়েদের পাশে থাকার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আশা করছি এখানেও মেয়েরা তাদের সামর্থ ও সাফল্যের স্বাক্ষর রাখবে। বাংলাদেশ দলের জন্য ওয়ালটন গ্রুপের পক্ষ থেকে শুভ কামনা জানাচ্ছি।’

পূর্ব নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী ১৫ সেপ্টেম্বর থেকে কমলাপুরে বাছাইপর্ব শুরু হলেও বাংলাদেশ মাঠে নামবে ১৭ সেপ্টেম্বর। এদিন বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ বাহরাইন। ১৯ সেপ্টেম্বর খেলবে লেবাননের বিপক্ষে। ২১ সেপ্টেম্বর মারিয়া মান্ডা-শামসুন্নাহারদের প্রতিপক্ষ সংযুক্ত আরব আমিরাত। আর ২৩ সেপ্টেম্বর শেষ ম্যাচে বাংলাদেশ খেলবে ভিয়েতনামের মেয়েদের বিপক্ষে।
 

এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপে এবার দল বাড়ায় ফরম্যাটেও পরিবর্তন আনা হয়েছে। আগের আসরে গ্রুপ চ্যাম্পিয়নরা সরাসরি উঠেছিল চূড়ান্ত পর্বে। তবে এবার চূড়ান্ত পর্বে যেতে হলে দুটি ধাপ পেরুতে হবে। প্রথম রাউন্ডের ৬ গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন ও সেরা দুই রানার্সআপ দল উঠবে দ্বিতীয় রাউন্ডে। ৮ দল দ্বিতীয় রাউন্ডে খেলবে দুই গ্রুপে ভাগ হয়ে। সেখান থেকে সেরা চারটি দল টিকিট পাবে চূড়ান্ত পর্বের।

থাইল্যান্ডে হবে চূড়ান্ত পর্বের ম্যাচগুলো। স্বাগতিক হিসেবে থাইল্যান্ড ইতিমধ্যে চূড়ান্ত পর্ব নিশ্চিত করেছে। আর উত্তর কোরিয়া, দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপান সরাসরি খেলবে চূড়ান্ত পর্বে।

বাংলাদেশের কিশোরীরা সাফ অনূর্ধ্ব-১৫ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপ থেকে ফিরেই এএফসি অনূর্ধ্ব-১৬ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের জন্য প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছে। গোলাম রাব্বানী ছোটনের শিষ্যরা এই টুর্নামেন্টের জন্যও প্রস্তুত।