আবুধাবি টেস্টই হাফিজের শেষ

আবুধাবি টেস্টই হাফিজের শেষ

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে চলমান আবুধাবি টেস্ট শেষে এই ফরম্যাট থেকে অবসর নেবেন মোহাম্মদ হাফিজ। সীমিত ওভারের ক্রিকেটে মনোযোগ বাড়াতেই টেস্ট ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন পাকিস্তানের এই অলরাউন্ডার।

মঙ্গলবার আবুধাবি টেস্টের দ্বিতীয় দিনের খেলা শেষে অবসরের ঘোষণাটা দেন হাফিজ, ‘আজ আমি টেস্ট ক্রিকেট থেকে অবসরের ঘোষণা দিচ্ছি, যেন সাদা বলের ক্রিকেটে পাকিস্তানের হয়ে খেলায় মনোযোগ দিতে পারি। পাকিস্তানের হয়ে আগামী বছরের বিশ্বকাপে খেলা আমার লক্ষ্য।’

নিজের টেস্ট ক্যারিয়ার নিয়ে সন্তুষ্টির কথাও জানান ৩৮ বছর বয়সি অলরাউন্ডার, ‘দলকে নেতৃত্ব দেওয়াসহ দেশের হয়ে ৫৫ টেস্ট খেলতে পেরে আমি সম্মানিত। ১৫ বছরের দীর্ঘ ক্যারিয়ারে আমার সামর্থ্যের সবটুকু দিয়ে পারফর্ম করায় আমি সন্তুষ্ট।’

গত অক্টোবরে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজ দিয়ে দুই বছর পর পাকিস্তানের টেস্ট দলে ফেরেন হাফিজ। প্রথম টেস্টে ইমাম উল-হকের সঙ্গে দুইশ রানের উদ্বোধনী জুটি গড়ার পথে দারুণ সেঞ্চুরি করে প্রত্যাবর্তনটা রাঙান ডানহাতি ব্যাটসম্যান। দুবাইয়ে ১২৬ রানের সে ইনিংসটির পর সাত ইনিংসে অবশ্য তিনি ২০ পার করতে পারেননি।

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে চলমান সিরিজে চার ইনিংসে হাফিজ করেছেন মাত্র ৩৯ রান। বল হাতেও কোনো উইকেট পাননি। মঙ্গলবার তৃতীয় টেস্টের প্রথম ইনিংসে শূন্য রানে আউট হওয়ার পরই তিনি অবসরের ঘোষণা দিয়ে দিলেন।

টেস্ট ক্যারিয়ারের ৩ হাজার ৬৪৪ রানকে আরেকটু বাড়িয়ে নেওয়ার সুযোগ দ্বিতীয় ইনিংসে পাচ্ছেন হাফিজ। ২০০৩ সালে অভিষেকের পর চলমান টেস্টসহ ৫৫ ম্যাচে ৩৮.৩৫ গড়ে এই রান করেছেন তিনি। সেঞ্চুরি আছে ১০টি। সর্বোচ্চ ইনিংস ২৪৪, ২০১৫ সালে খুলনায় বাংলাদেশের বিপক্ষে।