অভিনয়ের টানেই রয়ে গেলেন নাফিজা

অভিনয়ের টানেই রয়ে গেলেন নাফিজা

অভি মঈনুদ্দীন : দীর্ঘ পাঁচ বছর পর দেশে ফিরে দুই মাস থাকার কথা ছিলো অভিনেত্রী নাফিজা জাহানের। কিন্তু অভিনয়ের প্রতি নিজের ভেতর আবারো এক অন্যরকম ভালোলাগা অনুভব করছেন বিধায় নির্ধারিত সময় পেরিয়ে যাবার পরও নাফিজা আপাতত দেশ ছেড়ে নিজের বর্তমান আবাসস্থল আমেরিকা যাচ্ছেন না। বিষয়টি নাফিজাই নিশ্চিত করেছেন। নাফিজা বলেন, ‘পাঁচ বছর পর দেশে ফিরে নিজের মতো করেই সময় কাটাচ্ছি। তবে দেশে ফিরেই আমি অভিনয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়ি। পরিবার, বন্ধু বান্ধবকেও ঠিক মতো সময় দিতে পারিনি। কথা ছিলো দুই মাস পর আবার আমেরিকায় চলে যাবো। কিন্তু একের পর এক ভালো ভালো গল্পের স্ক্রিপ্ট আসার কারণে আমি একের পর এক নাটকে অভিনয় করছি। সত্যি বলতে কী অভিনয়ের প্রতি সবসময়ই ভালোলাগা, ভালোবাসা ছিলো।

 আবার যখন ক্যামেরার সামনে দাঁড়ালাম তখন সেই ফেলে আসা আমাকে আমি খুঁজে পেলাম। অভিনয়ের আঙ্গিনায় ফিরে এসে আবার নতুন করে নিজেকে আবিস্কার করেছি। তাই অভিনয়ের প্রতি মনের টানে আরো কিছুদিন দেশে থেকে যেতে চাই, আরো ভালো ভালো কয়েকটা নাটকে কাজ করতে চাই। নির্মাতারা আমার প্রতি আগ্রহ প্রকাশ করছেন, প্রায় প্রতিদিনই স্ক্রিপ্ট হাতে আসছে। বেছে বেছে কাজগুলো করছি।’ এরইমধ্যে গেলো ২ নভেম্বর আরটিভিতে প্রচার হলো সঞ্জিত সরকার পরিচালিত দেশে ফেরার পর নাফিজা অভিনীত প্রথম নাটক ‘শেষ দেখার পরে’। এতে তারসহশিল্পী ছিলেন মীর সাব্বির ও ফারহানা মিলি। এদিকে এরইমধ্যে নাফিজা জাহান শেষ করেছেন সকাল আহমেদ’র ‘চঞ্চল প্রেম’, সঞ্জিত সরকারের ‘চিটিং মাস্টার’ ও এল আর সোহেলের ‘যেখান থেকে শেষ’ নাটকের কাজ। হাতে আছে আরো কেশ কয়েকটি ভালো গল্পের স্ক্রিপ্ট। কাজ শুরু করলেই জানান দেবেন তিনি। তবে নাফিজা জানান এরমধ্যে বিজ্ঞাপনে কাজ করার ব্যাপারেও কথা চলছে। ব্যাটে বলে মিলেগেলে তিনি বিজ্ঞাপনেও কাজ করবেন। যাবার আগে দর্শকের ভালোলাগার মতো কিছু ভালো কাজ করে যাওয়াই নাফিজার লক্ষ্য। ছবি : মোহসীন আহমেদ কাওছার।