মাদকবিরোধী অভিযানের মধ্যে গুলিতে নিহত ৪

মাদকবিরোধী অভিযানের মধ্যে গুলিতে নিহত ৪

সারাদেশে চলমান মাদকবিরোধী অভিযানের মধ্যে গুলিতে আরও চারজন নিহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে কুষ্টিয়া ও চাঁপাইনবাবগঞ্জে একজন করে কথিত বন্দুকযুদ্ধে আর দুই দল মাদক ব্যবসায়ীর মধ্যে গোলাগুলিতে দিনাজপুর ও কক্সবাজারে একজন করে নিহত হয়েছেন বলে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর ভাষ্য।

কুষ্টিয়া

কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলায় পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে একজন নিহত হয়েছেন।

ভেড়ামারা থানার ওসি আমিনুল ইসলাম জানান, নিহত শ্যামের (৩৮) বিরুদ্ধে ভেড়ামারা থানায় আটটি মাদক মামলা রয়েছে।

উপজেলার ক্ষেমিরদিয়াড় এলাকার তোবারক মিয়ার ছেলে শ্যাম এলাকার চিহ্নিত মাদক বিক্রেতা বলে পুলিশের ভাষ্য।

ওসি আমিনুল বলেন, শনিবার ভোরের দিকে বাঁকাপুল চরদামুকদিয়া এলাকায় মাদক কেনাবেচা হচ্ছে বলে খবর আসে।

“পুলিশ অভিযানে গেলে মাদক ব্যবসায়ীরা গুলি বর্ষণ করে। পুলিশ পাল্টা গুলি করলে শ্যাম আহত হন। তাকে ভেড়ামারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।”

কথিত এই বন্দুকযুদ্ধে এক এসআইসহ তিন পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন জানিয়ে তিনি বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ৫০০ ইয়াবা, একটি ওয়ান শুটারগান, দুটি গুলি ও দুটি গুলির খোসা উদ্ধার করেছে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ

চাঁপাইনবাবগঞ্জে র‌্যাবের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে অজ্ঞাতপরিচয় এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন।

র‌্যাব ৫-এর চাঁপাইনবাবগঞ্জ ক্যাম্পের ডেপুটি কমান্ডার আবু খায়ের বলেন, শুক্রবার রাত দেড়টার দিকে সদর উপজেলার মোল্লান এলাকায় গোলাগুলির এ ঘটনা ঘটে।

“র‌্যাব মাদকবিরোধী অভিযানে গেলে মাদক ব্যবসায়ীরা গুলি ছোড়ে। র‌্যাব পাল্টা গুলি চালালে কয়েকজন মাদকব্যবসায়ী পালিয়ে যায়। আর একজনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।”

ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র, গুলি ও ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়েছে বলে তিনি জানান। তবে কী পরিমাণ অস্ত্র, গুলি ও ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়েছে সে বিষয়ে তিনি কিছু বলতে পারেননি।

দিনাজপুর

দিনাজপুরের পার্বতীপুর উপজেলায় ‘দুই দল মাদক ব্যবসায়ীর মধ্যে’ গোলাগুলিতে একজন নিহত হয়েছেন বলে পুলিশ জানিয়েছে।

পার্বতীপুর থানার ওসি হাবিবুল হক প্রধান বলেন, “শুক্রবার রাত ৩টার দিকে উপজেলার বেলাইচণ্ডী ইউনিয়নের বার্নিরহাট এলাকায় গোলাগুলির খবর আসে।

“পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে আব্দুল করিম নামে এক মাদক ব্যবসায়ীকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে। তাকে হাসপাতালে নেওয়ার পথে মৃত্যু হয়।”

তার কাছে থাকা এক রাউন্ড গুলিসহ একটি ওয়ান শুটারগান ও ‘বেশ কিছু’ ইয়াবা ও ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, তার বিরুদ্ধে থানায় একাদিক মাদক মামলা রয়েছে।

কক্সবাজার

কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলায় ‘দুই দল মাদক ব্যবসায়ীর মধ্যে সংঘর্ষের’ ঘটনায় একজন গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয়েছেন বলে পুলিশ জানিয়েছে।

নিহত মোহাম্মদ ইসমাঈল (৩৮) চকরিয়া পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডের কোচপাড়ার আব্দুস সালামের ছেলে।

চকরিয়া থানার ওসি বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, “শনিবার ভোরের দিকে উপজেলার লামা-আলীকদম সড়কের পাহাড়ি এলাকায় দুই দল মাদক ব্যবসায়ী সংঘর্ষে লিপ্ত হয়।

“এ সময় গুলিতে চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী নিহত হন। তার বিরুদ্ধে মাদক ব্যবসায় জড়িত থাকার অভিযোগে চকরিয়াসহ বিভিন্ন থানায় মামলা রয়েছে।”

পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ৪৬৫টি ইয়াবা, একটি বন্দুক ও দুটি গুলি উদ্ধার করেছে বলে তিনি জানান। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।