ঢাকার পর এবার গাজীপুরে মিলবে ই-পাসপোর্ট

ঢাকার পর এবার গাজীপুরে মিলবে ই-পাসপোর্ট

 বহুল প্রতীক্ষিত ইলেক্ট্রনিক পাসপোর্ট বা ই-পাসপোর্টের কার্যক্রম এরই মধ্যে চালু হয়েছে ঢাকার উত্তরা, আগারগাঁও ও যাত্রাবাড়ীতে। এই তিন জায়গার পর ঢাকার বাইরে প্রথম গাজীপুরে চালু হচ্ছে ই-পাসপোর্ট।


সোমবার (২ মার্চ) গাজীপুর আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসের সহকারী পরিচালক মো. সালেহ উদ্দিন এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, মঙ্গলবার (৩ মার্চ) থেকে গাজীপুর আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিসে ই-পাসপোর্টের আবেদন জমা নেওয়ার জন্য সব ধরনের সরঞ্জাম বসানোর কাজ শুরু হবে। প্রযুক্তিগত বিষয়গুলো চেক করতে সর্বোচ্চ দু’দিন সময় লাগবে। পরে ই-পাসপোর্টের জন্য সেন্ট্রাল সার্ভারের সঙ্গে সংযুক্ত করা হবে গাজীপুর আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস। আনুষঙ্গিক কাজ সম্পন্ন করে চলতি সপ্তাহেই গাজীপুর থেকে ই-পাসপোর্টের আবেদন জমা নেওয়া হবে।

মো. সালেহ উদ্দিন আরো বলেন, ঢাকার পরেই ই-পাসপোর্টের জন্য আবেদন করতে পারবেন গাজীপুরবাসী। আশা করা যাচ্ছে চলতি সপ্তাহ থেকে গাজীপুরে আবেদন শুরু হবে। প্রথমে স্বল্প পরিসরে কাজ শুরু হবে। ধীরে ধীরে ই-পাসপোর্টের আবেদন সংখ্যা বাড়বে বলে আশা করছি।

ই-পাসপোর্ট হবে ৪৮ ও ৬৪ পাতার। আর মেয়াদ হবে পাঁচ ও ১০ বছর। ৪৮ পৃষ্ঠার পাঁচ বছর মেয়াদি সাধারণ পাসপোর্টের জন্য ফি লাগবে ৩ হাজার ৫০০ টাকা। আর সাতদিনের মধ্যে (জরুরি) পেতে হলে ৫ হাজার ৫০০ টাকা ও দু’দিনে (অতি জরুরি) পাওয়ার জন্য লাগবে ৭ হাজার ৫০০ টাকা। একই সংখ্যক পৃষ্ঠার ১০ বছর মেয়াদি সাধারণ ই-পাসপোর্টের জন্য ৫ হাজার, জরুরি ৭ হাজার ও অতি জরুরির জন্য ৯ হাজার টাকা হাজার টাকা ফি নির্ধারণ করা হয়েছে।