আড়ালে কেন, সামনে আসুন বুবলী

আড়ালে কেন, সামনে আসুন বুবলী

গুঞ্জনে সরগরম ঢালিউড। দীর্ঘ দিন, মাস, বৎসর পর এমন একটি গুঞ্জন শুনিয়া সাধারণ দর্শক ও ইন্ডাস্ট্রির মানুষের মনে কৌতূহলের সৃষ্টি হইয়াছে। ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রিতে মাস দুয়েক আগে হইতেই এই গুঞ্জনের সূত্রপাত। গুঞ্জনের প্রধান চরিত্র হইলেন চিত্রনায়িকা বুবলী। যিনি সংবাদ পাঠিকা হইতে সুপারস্টার শাকিব খানের সুনজরে আসিয়া হঠাৎ ঝড়ের গতিতে একাধিক সিনেমায় নায়িকা বনে গিয়েছেন।

গুঞ্জন কিছুই নয়। সম্প্রতি শাকিব-বুবলী জুটির ‘বীর’ সিনেমাটি মুক্তি পাইলেও নায়িকাকে কোথাও প্রচারণায় দেখা যায় নাই। ওই সিনেমায় একটি আইটেম গানেও বুবলীকে পুরো শরীরে কাপড় জড়াইয়া নাচিতে দেখা গিয়েছে। গানটি প্রকাশের পর হইতেই তাহার ভক্তরাও নায়িকাকে সন্দেহের চোখে দেখিতেছেন। কিন্তু কেন?

এহেন অবস্থায় একটি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে সংবাদ হয়, বুবলী নাকি আমেরিকায় পাড়ি জমাইয়াছেন। শুধু তাই নয়, ২৫ হাজার মার্কিন ডলার খরচ করিয়া বুবলীকে যুক্তরাষ্ট্রে পাঠিয়েছেন শাকিব খান স্বয়ং। খবরের সারমর্ম হইলো, শাকিব খানের প্রাক্তন স্ত্রী অপু বিশ্বাসের পথে নাকি হাঁটিতেছেন চিত্রনায়িকা বুবলী! পাঠক আর কি কিছু বলিতে হইবে?

এমন খবর প্রকাশের পরেও চুপ রহিয়াছিলেন ‘অহংকার’ সিনেমার এই নায়িকা। এদিকে তাহার বড় ভগ্নি ও সঙ্গীতশিল্পী নাজনীন মিমি দিন দুয়েক আগে গণমাধ্যমকে বলিয়াছেন, ‘বুবলী দেশে নেই। আমি সিঙ্গাপুর যাওয়ার সময় বুবলী আমাকে আমেরিকা যাওয়ার কথা বলেছিল। তাই আমার জানা মতে, বুবলী বর্তমানে আমেরিকায় আছেন। আমেরিকা থেকে লন্ডন হয়ে ঢাকায় ফেরার কথা রয়েছে তার। ঘুরতেই দেশের বাইরে গেছে বুবলী।’

এর পরেও তিনি যদি চুপ থাকিতেন, তবু একটা কথা ছিল। কিন্তু তিনি চুপ না থাকিয়া বড় ভগ্নির কথা মিথ্যা প্রমাণ করিয়া কয়েকজন সাংবাদিককে জানিয়েছেন, ‘তিনি আমেরিকায় যান নাই। দেশেই রহিয়াছেন। নতুন সিনেমার জন্য প্রস্তুতি লইতেছেন।’ কথা হইলো তাহার সামনে আসিতে বাধা কোথায়? কয়লা শত ধুইলেও যেমন তাহার ময়লা যায় না, গুঞ্জনও কি তেমনি সহসা উড়াইয়া দেওয়া যায়? নাকি অপু বিশ্বাসের মতো গুঞ্জনকেই সত্য প্রমাণ করিবার ব্যাকুল বাসনা তাহার চপল মনে।

আড়ালে থাকিয়া বুবলী সব ঘটনা এবং দুর্ঘটনার খবর অস্বীকার করিয়াছেন। এখন তাহার কাছের লোকজন বলিতেছেন খেল খতম! কিন্তু অতি উৎসাহী একটি মহলের দাবি, বুবলীকে টেলিভিশন লাইভে হাজির হইয়া কথা বলিতে হইবে। একথাও ঠিক এত বড় একটা গুজব দীর্ঘদিন চাউর থাকিবার পরেও কেন তিনি নীরব থাকিবেন। যদিও সেটা তাহার ব্যক্তিগত বিষয়। তিনি যাহা খুশি তাহা করিতেই পারেন। কিন্তু তাই বলিয়া ‘শিক্ষিত’ ‘লক্ষ্মী মেয়ে’ চিত্রনায়িকা বুবলীকে লইয়া লোকে যাহা খুশি তাহা বলিয়া, লিখিয়া যাইবে? কেন?