আক্ষেপ নিয়ে মধ্যাহ্ন বিরতিতে টাইগাররা

আক্ষেপ নিয়ে মধ্যাহ্ন বিরতিতে টাইগাররা

সিরিজর একমাত্র টেস্টের দ্বিতীয় দিনের শুরুটা ভালোই হয়েছিল টাইগারদের। সফরকারী জিম্বাবুয়ে আগের দিনের ৬ উইকেটে ২২৮ রান পুঁজি নিয়ে ব্যাট করতে নামে। কিন্তু রাহী এবং তাইজুলের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে ৩৭ রান যোগ করতেই অলআউট হতে হয়েছে।


অন্যদিকে নিজেদের প্রথম ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা মোটেও সুখকর হয়নি তামিম-মুশফিকদের। শুরুতেই ব্যক্তিগত ৮ রানে সাজঘরে ফিরতে হয়েছে সাইফ হাসানকে। নিজেদের প্রথম ইনিংসে ওপেনার তামিম ইকবার ১০ এবং আরেক ব্যাটসম্যান রানে অপরাজিত থেকে মধ্যাহ্ন বিরতির গেছেন।  

বাংলাদেশের ইনিংসের শুরতেই ভিক্টর নিয়াউচির বলে উইকেটের পেছনে রেগিস চাকাবভার হাতে ক্যাচ দিয়ে ৮ রান করে সাজঘরে ফেরত যান ওপেনার সাইফ হাসান। মধ্যাহ্ন বিরতি পর্যন্ত প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৮ ওভারে ১ উইকেটে ২২ রান। 

এরআগে রোববার (২৩ ফেব্রুয়ারি) ৬ উইকেটে ২২৮ রান নিয়ে খেলতে নামা সফরকারী জিম্বাবুয়ে প্রথম ইনিংসে ২৬৫ রানে অলআউট হয়। দ্বিতীয় দিনের শুরু থেকেই সফরকারী ব্যাটসম্যানদের সুবিধা করতে দেননি টাইগার বোলাররা। রাহীর বোলিং তোপে আগের দিনের সঙ্গে ৩৭ রান যোগ করেই জিম্বাবুয়ের প্রথম ইনিংস শেষ হয়।

৬ উইকেটে ২২৮ রান নিয়ে দিনের খেলা শুরু করে সফরকারী জিম্বাবুয়ে। ডোনাল্ড তিরিপানোকে ফিরিয়ে দ্বিতীয় দিনের প্রথম সাফল্য এনে দেন রাহী। দলীয় ২৪০ রানের মাথায় ৮ রান করে উইকেটের পেছনে লিটন দাসের হাতে ক্যাচ দিয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন তিরিপানো।

এরপর আইনসলে এনভোদুকে শূন্য রানে এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলে আবারও প্যাভিলিয়নের পথ দেখান রাহী। চার্লটন টিসুমাও রানের খাতা খোলার আগে তাইজুল ইসলামের বলে এলবিডব্লিউ শিকার হন। রেগিস চাকাবভা ৩০ রান করে তাইজুলের দ্বিতীয় শিকারে পরিণত হলে প্রথম ইনিংসে ২৬৫ রানে অলআউট হয় জিম্বাবুয়ে।

নাঈম হাসান ও আবু জায়েদ রাহী ৪টি এবং তাইজুল ইসলাম ২টি উইকেট নেন।

এর আগে সিরিজের একমাত্র টেস্টের প্রথম দিনে জিম্বাবুয়ের অধিনায়ক ক্রেইগ আরভিন সেঞ্চুরির দেখা পান।