বিকাল ৪:১৫, শুক্রবার, ২৮শে এপ্রিল, ২০১৭ ইং
/ প্রবাস

করতোয়া ডেস্ক: বাহরাইনের রাজধানী মানামায় সড়ক দুর্ঘটনায় কাজী সোহেল (২৮) নামে এক  বাংলাদেশি যুবক নিহত হয়েছেন। শুক্রবার বাহরাইন স্থানীয় সময় বিকেল চারটায় মানামার মানামা হাইওয়ের ফোর সিজন হোটেলের কাছে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত সোহেল কুমিল্লার লাকসাম উপজেলার ডাকসিন চাঁদপুর এলাকার মিজিয়াপাড়া গ্রামের কাজী দুলালের ছেলে। তার সেন্ট্রাল পপুলেশন রেজিস্ট্রার (সিপিআর) নং-৮৭০৬৪১৩২৮। তিনি আল রিফাইন ক্যাফটেরিয়া নামক একটি রেস্টুরেন্টে মোটরসাইকেলে ডেলিভারির কাজ করতেন।
এ ব্যাপারে নিহতের রুমমেটরা  জানান, প্রতিদিনের মতো বৃহস্পতিবার বিকেলে সোহেল মোটরসাইকেলে ডেলিভারির জন্য খাবার নিয়ে যাওয়ার সময় ওই এলাকায় তার মোটরসাইকেল নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে আইল্যান্ডের সঙ্গে সজোরে ধাক্কা লাগে। এতে তিনি গুরুতর আহত হয়। পরে টহলরত পুলিশ তাকে উদ্ধার করে সালমানীয়া মেডিকেল কমপ্লেক্স হাসপাতালে ভর্তি  করে। সেখানে চিকিৎসাধীর অবস্থায় শনিবার (২২ এপ্রিল ) তার মৃত্যু হয়। নিহতের মরদেহ সালমানীয়া মেডিকেল কমপ্লেক্স হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। তার মরদেহ খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে দেশে পাঠানো হবে বলে  জানিয়েছে বাংলাদেশ দূতাবাস।

সৌদিতে সড়ক দুর্ঘটনায় দোহারের ২ জনের মৃত্যু

করতোয়া ডেস্ক: সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় ঢাকার দোহার উপজেলার দুইজনের মৃত্যু হয়েছে। দোহার থানার ওসি শেখ সিরাজুল ইসলাম জানান, শুক্রবার রাতে সৌদি আরবের ওয়াদি আল দরুস এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন -দোহার উপজেলার জয়পাড়া এলাকার মো. সেলিম ও মাহমুদপুর ইউনিয়নের চরবৈতা এলাকার মুসলিম মোল্লা। নিহতদের স্বজনরা জানান, বৃহস্পতিবার বিকালে সৌদি আরবের জিজান থেকে রিয়াদে যাচ্ছিলেন কয়েকজন বাংলাদেশি। ওয়াদি আল দাউসির এলাকায় এক সড়ক দুর্ঘটনায় তাদের মৃত্যু হয়।

মালয়েশিয়ায় ৩৭ বাংলাদেশি আটক

করতোয়া ডেস্ক : মালয়েশিয়ায় ৩৭ বাংলাদেশিসহ ৩৭৬ জন অবৈধ অভিবাসীকে আটক করেছে দেশটির আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। সোমবার স্থানীয় সময় বিকেল ৫টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত সারাওয়াক প্রদেশে পরিচালিত অভিযানে তাদের আটক করা হয়।

মালয়েশিয়ার অভিবাসন দফতরের মুখপাত্র মাসপাউন বোলহাসানের বরাত দিয়ে দেশটির সরকারি সংবাদ সংস্থা বারনামা জানায়, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর উপপ্রধান রোসলিয়াহ কাসিমের নেতৃত্বে পরিচালিত অভিযানে তাদেরকে আাটক করা হয়। আটককৃতদের মধ্যে ১৫৮ জন ইন্দোনেশিয়া, ১২৭ জন চীন, ৪৩ জন ভারত, ৭ জন ফিলিপাইন, ১ জন শ্রীলঙ্কা ও ৩ জন স্থানীয় নাগরিক। এদের মধ্যে ১১৯ জন পুরুষ ২ জন নারীর কাছে কোনো বৈধ কাগজপত্র ছিল না। এছাড়া ইন্দোনেশিয়ার ৪১ জন, ভারতের তিনজন এবং ফিলিপাইনের দু’জন নির্দিষ্ট সময় অতিবাহিত হয়ে যাওয়ার পরও দেশটিতে অবস্থান করছিলেন। বারনামা আরও জানায়, গত রোববার সারাওয়াক অভিবাসন দফতর মালয়েশিয়ার মুকানের বালিনগিয়ান এলাকায় একটি নির্মাণাধীন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ১৮৯ জন অবৈধ অভিবাসীকে আটক করা হয়।

সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় বাংলাদেশি নিহত

ফেনী প্রতিনিধি : সৌদি আরবের জেদ্দায় সড়ক দুর্ঘটনায় মাহতাব উদ্দিন নামে এক বাংলাদেশি নিহত হয়েছেন। সোমবার দিনগত রাত ১২টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত মাহতাব ফেনীর ফুলগাজী উপজেলার গাবতলা পাটোয়ারি বাড়ির ফয়েজ আহাম্মদের ছেলে।

মাহতাবের ভাতিজা কপিল  জানান, সোমবার রাতে জেদ্দা শহরে টিউশনি শেষে বাসায় ফিরছিলেন মাহতাব। এসময় এক মাইক্রোবাসের ধাক্কায় গুরুতর আহত হন তিনি। আধঘণ্টা পর পুলিশ এসে মাহতাবকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। মাহতাব সেখানে একটি মসজিদে ইমামতি করতেন। ১৭ মার্চ তার নামাজে জানাজা শেষে জান্নাতুল বাকীতে দাফন করা হবে বলেও জানান ভাতিজা কপিল।

কাতারে সড়ক দুর্ঘটনায় দুই বাংলাদেশির মৃত্যু

করতোয়া ডেস্ক : কাতারে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রবাসী দুই বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে, আহত হয়েছেন আরও একজন। গত শুক্রবার রাতে দোহার নিউ সানাইয়া এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে নিহতদের স্বজনরা জানিয়েছেন। নিহতরা হলেন- কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার চিওড়া ইউনিয়নের ঝাটিয়ারখিল গ্রামের আবুল কাশেম চৌধুরীর ছেলে শহিদুল হাসান সৈকত চৌধুরী (২৬) ও তেলি গ্রামের আহাম্মদ উল্যাহর ছেলে মো. শিপন (৩৫)। আহত ওমর ফারুক ভূঁইয়াকে (৪০) দোহার হামাদ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।  

রাতে প্রাইভেটকারে বাসায় ফেরার পথে তারা দুর্ঘটনায় পড়েন বলে নিহত সৈকতের চাচা আব্দুল মমিন জানান। তিনি বলেন, শুক্রবার রাতে ফিরতে দেরি হওয়ায় তিনি সৈকতের মোবাইলে ফোন করেন। কিন্তু সেটি বন্ধ পেয়ে বিভিন্ন স্থানে খোঁজ নেওয়া শুরু করেন। পরে নিউ সানাইয়া এলাকার হামাদ হাসপাতালে দুজনের মরদেহ পাওয়া যায়। কাতারে বাংলাদেশ দূতাবাসের প্রথম শ্রম সচিব রবিউল ইসলাম বলেন, নিহত দুইজনের লাশ দ্রুত দেশে পাঠানোর ব্যাবস্থা করবেন তারা।

জালিয়াতির মামলায় নিউ ইয়র্কে সাত বাংলাদেশি গ্রেফতার

করতোয়া ডেস্ক : প্রবাসীদের গোপন তথ্য চুরি করে ক্রেডিট কার্ড জালিয়াতির মাধ্যমে ৩০ লাখ ডলার হাতিয়ে নেওয়ার মামলায় ৭ বাংলাদেশিসহ ৩০ জনকে গ্রেফতার করেছে নিউ ইয়র্ক পুলিশ। গ্রেফতারকৃতদের কাছ থেকে কয়েক ডজন জাল ক্রেডিট কার্ডসহ পরিচয়পত্র তৈরির ৪টি মেশিন, নগদ ৪ লাখ ডলার, স্বর্ণের বার, চুরির টাকায় কেনা ৫টি গাড়ি ও ৩টি আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে বলে বৃহস্পতিবার এক সংবাদ সম্মেলনে কুইন্সের ডিস্ট্রিক্ট এটর্নি রিচার্ড এ ব্রাউন জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ২০১৫ সালের এপ্রিল থেকে সংঘবদ্ধ অপরাধ চক্রের এ সদস্যরা কুইন্সসহ আশপাশের এলাকায় প্রতারণা চালিয়ে আসছিল। তারা সিটি ব্যাংক, ব্যাংক অব আমেরিকা, চেজ, আমেরিকান এক্সপ্রেসের কার্ড জালিয়াতি করে বিভিন্ন দোকান থেকে স্বর্ণালংকার, ইলেক্ট্রনিক্সসহ নানান ধরনের পণ্য কিনে পরে অন্যখানে স্বল্পদামে বিক্রি করে টাকা হাতিয়ে নিত।

গ্রেফতার ৭ বাংলাদেশির মধ্যে জালিয়াত চক্রের দলনেতা মোহাম্মদ রানার (৪০) বাসা জ্যামাইকার ৯৩ নম্বর অ্যাভিনিউতে। বাকিরা হলেন- জ্যামাইকার ১৭০ নম্বর স্ট্রিটে বসবাস করে আসা বিল্লাহ, লেফার্টস বুলেভার্ডের তানভির সিধু ওরফে সানী (২৫), ১২৬ নম্বর স্ট্রিটের মহসিন খান ওরফে চাচা (৫৯), করোনার সোলটেল এভিনিউর সেলিনা ওরফে পচো, ভ্যালিস্ট্রিমের সালিম রোডের মোহাম্মদ ইকবাল (৩০), কুইন্সের ব্রায়ারউডের কলেজ অ্যাভিনিউর মোহাম্মদ হাসান (৫২) এবং কণ্ঠশিল্পী শম্পা জামান (৪৬)। শম্পা জ্যামাইকার ১৮০ নম্বর স্ট্রিটের বাসিন্দা। সংবাদ সম্মেলনে নিউ ইয়র্কের পুলিশ কমিশনার জেমস পি ও’ নীল জানান, বাংলাদেশি ছাড়া চক্রের বাকি সদস্যরা ভারত ও পাকিস্তানের নাগরিক। সহ দলনেতা ইন্দারজিৎ সিং ওরফে গয়া এবং সনুকেও (২৪) গ্রেফতার করা হয়েছে। অভিযোগ প্রমাণিত হলে এদের সবার সর্বোচ্চ ২৫ বছর কারাদন্ডসহ মোটা অংকের আর্থিক জরিমানা হতে পারে বলে ডিস্ট্রিক্ট এটর্নি ব্রাউন জানিয়েছেন।

আমিরাতে এগিয়ে যাচ্ছে প্রবাসী বাংলাদেশি নারীরা


সংযুক্ত আরব আমিরাত লিঙ্গ সমতা রক্ষায় মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোর চেয়ে একধাপ এগিয়ে আছে। নারীদের সামাজিক নিরাপত্তা,শিক্ষার অধিকার,ফরেন সার্ভিস থেকে জনপ্রশাসনের প্রতিটি ক্ষেত্রে নারীদের সমান অংশগ্রহণের সুযোগ এবং এমনকি নারী শিল্প উদ্যোক্তাদের নানাভাবে প্রণোদনা দিয়ে এগিয়ে নেওয়া দেশটির ভাবমূর্তিকে এক অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গেছে।

পেট্রো প্রাচুর্যের কারণে বিশ্বের সবচেয়ে ধনী দেশগুলোর একটি হওয়ায় অর্থনৈতিক সুরক্ষা বলয়ের মধ্যে থেকেও দেশের নারীরা ঘরে বসে থাকেননি। হিজাবের মধ্যে থেকেও পুরুষের পাশাপাশি তারা নিজ নিজ কর্মক্ষেত্রে এগিয়ে গেছেন।

ওয়ার্ল্ড ইকোনোমিক ফোরামের ‘গ্লোবাল জেন্ডার গ্যাপ’- এর এক রিপোর্ট অনুযায়ী, লিঙ্গ সমতার ক্ষেত্রে সংযুক্ত আরব আমিরাত মধ্যপ্রাচ্যের সব দেশ থেকে উন্নয়নের সবগুলো সূচকে এগিয়ে আছে। পুরুষ ও নারী সমাজের উন্নয়নের সমান অংশীদার- এ ধারণায় বিশ্বাস করেন এ দেশের মানুষেরা।

দেশের সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারণী প্রতিষ্ঠান ‘ফেডারেল ন্যাশনাল কাউন্সিল’ (যা দেশটির আইনসভা)-এর ৯ জন সদস্যই নারী। আমিরাতের কেন্দ্রিয় সরকারের ২৯ সদস্যের কেবিনেটে ৭ জন নারী রয়েছেন। জাতিসংঘ,স্পেন,ফিনল্যান্ড,পর্তুগাল,ডেনমার্কের মত দেশে আমিরাতের রাষ্ট্রদূত নারী।

‘আরব উইম্যান অর্গানাইজেশন’- এর মতে সংযুক্ত আরব আমিরাতের পাবলিক সেক্টরে জনশক্তির ৬৬ শতাংশই নারী। আর এদের মধ্যে ৩০ শতাংশ নীতি-নির্ধারণী ভূমিকায় আছেন। দুবাইয়ের এয়ারপোর্টগুলোর ৩৬ শতাংশ নির্বাহী পদ নারীদের দখলে। ইউএই’র ডিপ্লোমেটিক মিশনের ২০ শতাংশ সদস্যই নারী।

সামাজিক, অর্থনৈতিক, সাংস্কৃতিক, রাজনৈতিক অঙ্গনের সর্বত্রই নারীদের সাফল্যগাঁথা রচিত হয়েছে উদার রাষ্ট্রনীতির কারণে। আমিরাতের নারীরা এগিয়ে যাচ্ছেন সর্বক্ষেত্রে। দেশটিতে স্বাক্ষরতার হার ৯৫ শতাংশেরও বেশি হলেও বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর শিক্ষায় পুরুষের চেয়ে এগিয়ে আছেন নারীরা।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইতে ৮ মার্চ ‘বিশ্ব নারী দিবস’কে সামনে রেখে এমিরেটস এয়ারলাইন্স নারীদের মহিমান্বিত করার একটি চমৎকার পদক্ষেপ নিয়েছিল। এয়ারলাইন্সের মিশরীয় মহিলা ক্যাপ্টেন নিভিন দারবিশ ও আমিরাতি ফার্স্ট অফিসার আলিয়া আল মুহেইরি এমিরেটস বহরের সুপার জাম্বু এয়ারক্রাফট A-380 এয়ারবাস নিয়ে উড়ে গেলেন দুবাই থেকে ভিয়েনা এবং ফিরেও এলেন।

ক্যাপ্টেন দারবিশ প্রথম আরব মহিলা যিনি এয়ারবাস A-380-এর ক্যাপ্টেনের দায়িত্ব পেলেন। আর ফার্স্ট অফিসার এই এয়ারক্রাফটের সবচেয়ে নবীন মহিলা পাইলট হলেন।

এমিরেটস এয়ারলাইন্সের মোট জনশক্তির ৪৪ শতাংশ নারী এবং বিগত ৩১ বছরেরও বেশি সময় ধরে এর উত্তরোত্তর প্রবৃদ্ধিতে নারী কর্মীরা গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে আসছেন। বর্তমানে এমিরেটস এয়ারলাইন্সে ১৫০টি দেশের ২৯ হাজার নারী কর্মী রয়েছেন।

সদ্য গ্র্যাজুয়েট অহুদ আল রুমিকে যখন দেশের কেন্দ্রিয় সরকারের নতুন সংযোজিত মন্ত্রণালয় ‘মিনিস্ট্রি অব হ্যাপিনেস’-এর প্রতিমন্ত্রী করা হয়েছিল, তখন অনেকেরই চক্ষু চড়কগাছ হয়েছিল।

প্রথমত, এ ধরনের একটি মন্ত্রণালয় যে থাকতে পারে, তা নিয়ে দ্বিধা ছিল অনেকের মনে। আবার সে মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব এত কম বয়েসী কাউকে দেওয়ায় সংশয় দেখা দিয়েছিল। কিন্তু পরে তার যৌক্তিকতা প্রমাণিত হয়। এ অঞ্চলের সবচেয়ে সুখী দেশ ইউএই’র নাগরিক ও অভিবাসীর মধ্যে একটা সুখ ও স্বস্তির আবহ সৃষ্টির মাধ্যমে তাদের মধ্যে আরও সক্ষমতা বৃদ্ধি এ মন্ত্রণালয়ের কাজ। আর তা অপেক্ষাকৃত একজন নতুন প্রজন্মের হাতে থাকলে সৃজনশৈলী ও তারুণ্যের উদ্যাম দিয়ে তিনি যে সফলভাবে তা করতে পারেন, এটাই বাস্তবতা। মিনিস্ট্রি অব টলারেন্সের দায়িত্বে একজন নারীকে রেখে এমনকি ২৩ বছরের অক্সফোর্ড গ্র্যাজুয়েট শাম্মা আল মাজরুইকে প্রতিমন্ত্রী করে দেশটি উন্নয়নে নারীর অংশগ্রহণ নিশ্চিত করে তার অবস্থানকে দিয়েছে অনন্য মহিমা।

আমিরাতে প্রবাসী বাংলাদেশি পেশাজীবী নারীরাও চিকিৎসা, নির্মাণ, ক্ষুদ্র ব্যবসা, সেবাসহ বিভিন্ন সেক্টরে তাদের পেশাগত দক্ষতা দেখিয়ে দেশের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছেন। কেউ আছেন দেশের মূলধারার রাজনীতির সাথে।

আবুধাবির ‘যায়েদ ইউনিভার্সিটি’র ‘ডিপার্টমেন্ট অব হিউম্যানিটিজ অ্যান্ড সোশ্যাল সায়েন্স’- এর অ্যাসিস্টেন্ট অধ্যাপক মেহরাজ জাহান শিক্ষকতা করছেন ২০০৭ সাল থেকে। একই ডিপার্টমেন্টে সিনিয়র শিক্ষক প্রফেসর হাবিবুল হক খোন্দকারও কাজ করছেন। কাজ করতে গিয়ে তার সুযোগ ঘটে আমিরাতিদের সাথে ভাব বিনিময়ের। স্রেফ কথায় নয়, এখানে কাজে লিঙ্গ সমতার পরিবেশ মুগ্ধ করে তাকে।


শীর্ষ স্থানীয় আন্তর্জাতিক ব্যাংক ‘মাশরেক ব্যাংক ‘-এর আবু ধাবিতে বাংলাদেশি বিজনেস ডেভেলপমেন্ট ম্যানেজার মেহেরুন নেছা দীপা ১৭ বছর ধরে কাজ করছেন। এ কাজ করতে যেয়ে তার কাজের পরিবেশকে এক কথায় তিনি বলেন- “অ্যামেজিং। আরব পুরুষ সহকর্মীরা আমাদেরকে অনেক সহযোগিতা করেন এবং আমাদের কাজের প্রতি তারা শ্রদ্ধাশীল।” তিনি এও বলেন যে বাংলাদেশি মেয়েদের এখানে কাজের বহু সুযোগ আছে।


দুবাইতে বসবাসরত মহিলা বঙ্গবন্ধু পরিষদ ইউএই’র সভাপতি কাউছার নাজ নাছের বলেন, “একজন নারী এখানে কোন নিরাপত্তাহীনতায় ভোগেন না। তার সন্মানটুকু থেকে কেউ তাকে বঞ্চিত করেন না,এটাই এখানকার ভাল দিক। তবে আমাদের দেশেও এখন ধীরে ধীরে পরিস্থিতির উন্নতি হচ্ছে।”


একটি ট্র্যাভেল এজেন্সিতে সেলস এজেন্ট মণি কুন্ডূ কিংবা এক্সচেঞ্জ হাউজের বিপণন কর্মকর্তা ইন্দিরা পাল বাংলাদেশি হয়ে সংযুক্ত আরব আমিরাতে কাজ করতে কোন বৈষম্যের শিকার হন না,সেটা জাতিগত বৈষম্য হোক কিংবা লিঙ্গ বৈষম্য- যাই হোক না কেন।

নিউ ইয়র্কে বাংলাদেশি ব‌্যবসায়ীকে ছুরি মেরে হত‌্যা

নিউ ইয়র্ক সিটির ব্রঙ্কসে বাংলাদেশি কমিউনিটির পরিচিত মুখ রিয়েল এস্টেট ব্যবসায়ী জাকির খান বাড়িওয়ালার ছুরিকাঘাতে নিহত হয়েছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।     

স্থানীয় সময় বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে থ্রগস নেক এলাকার লগান এভিনিউয়ে বাসার সামনেই ৪৪ বছর বয়সী জাকির খানকে উপর্যুপরি ছুরিকাঘাত করা হয় বলে টহল পুলিশ সংবাদমাধ‌্যমকে জানিয়েছে।

সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জের সন্তান জাকির খান ব্রঙ্কসের পার্কচেস্টার রিয়েল এস্টেট কোম্পানি নামে একটি ব্রোকার প্রতিষ্ঠান চালাতেন। ১৩ বছর বয়েসী এক মেয়ে এবং দশ ও সাত বছর বয়েসী দুই ছেলেকে রেখে গেছেন তিনি।

গুরুতর আহত অবস্থায় রাতে জাকিরকে জ্যাকবি মেডিকেল সেন্টারে নেওয়া হলে জরুরি বিভাগের চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তার বুকে অন্তত সাতটি ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।

স্থানীয় পুলিশ ৫১ বছর বয়সী ওই অ‌্যাপার্টমেন্টের মালিককে গ্রেপ্তার করেছে জানিয়ে স্থানীয় সংবাদমাধ‌্যমে বলা হয়েছে, ভাড়া নিয়ে দ্বন্দ্বের জেরে এ ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে।   

জাকির খানের ঘনিষ্ঠজনরা বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, মিশরীয় ওই মালিকের বাসায় জাকির দীর্ঘদিন ধরে ভাড়া ছিলেন। তবে মালিকের অভিযোগ ছিল, জাকির বেশ কয়েক মাস ধরে ভাড়া দিচ্ছিলেন না, তিনি নাকি অ‌্যাপার্টমেন্টটি কিনতে চাইছিলেন।
জাকিরের খুন হওয়ার খবর ছড়িয়ে পড়লে প্রবাসী বাংলাদেশিদের অনেকেই হাসপাতালে জড়ো হন। ঘাতকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন তারা।

নিউ ইয়র্কে বাংলাদেশের বিভিন্ন দিবস উদযাপনের আয়োজনে সক্রিয় অংশগ্রহণ ছিল জাকিরের। দুদিন আগে ব্রঙ্কসে একুশ উদযাপনের কর্মসূচিতেও জাকির খানের ভূমিকা ছিল।

প্রবাসীদের দাবি নিয়ে আলোচনার সূত্র ধরে স্থানীয় কংগ্রেস সদস‌্য, সিনেটর ও অ‌্যাসেম্বলি সদস‌্যদের সঙ্গেও তার ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ তৈরি হয়েছিল।

ব্রঙ্কসে বাংলাদেশি কমিউনিটির নেতা মোহাম্মদ এন মজুমদার হাসপাতাল থেকে বিডনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, স্ত্রী ও সন্তানেরা জাকিরের লাশের পাশে কান্নায় ভেঙে পড়েছেন।

পার্কচেস্টারে বাংলাদেশি কমিউনিটির নেতা নজরুল হক বলেন, “মর্মান্তিক এ ঘটনায় জাকির খানের পরিবার মুষড়ে পড়েছে। তারা সবার দোয়া চেয়েছেন।”

 

ফ্রান্স জুড়ে ভাষা শহীদদের স্মরণ

করতোয়া ডেস্ক : ফ্রান্স জুড়ে ভাষা শহীদদের স্মরণে প্রবাসী বাংলাদেশিরা নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে পালন করেছে মহান শহীদ দিবস। স্থানীয় সময় মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৭টায় ফ্রান্সে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এম শহীদুল ইসলাম দূতবাস প্রাঙ্গণে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও অর্ধনমিত করেন। এরপর দূতাবাস প্রাঙ্গণে অস্থায়ী শহীদ বেদিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান রাষ্ট্রদূতসহ দূতাবাসের সর্বস্তরের কর্মকর্তা, কর্মচারী ও ফ্রান্স প্রবাসী বিভিন্ন সংগঠন।

স্থানীয় সময় বেলা ১২টায় ফ্রান্সের অবারভিলিয়ে শহরের স্কয়ার এমে সেজারে প্রস্তাবিত শহীদ মিনারের জন্য নির্মিত নির্ধারিত স্থানে ‘উদীচী ফ্রান্স সংসদ’-এর উদ্যোগে অস্থায়ীভাবে নির্মিত শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্য দিয়ে শহীদ দিবসের কার্যক্রম শুরু হয়। ফ্রান্সে বাংলাদেশ দূতাবাসের বাণিজ্য সচিব মো.ফিরোজ উদ্দিন এবং একুশে পদকপ্রাপ্ত ও আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন মুকাভিনয় শিল্পী পার্থ প্রতিম মজুমদারের পুষ্পস্তবক অর্পণের পর উবারভিলিয়ে শহরের সহকারী মেয়র অন্তনি দাগে ও ওবারভিলিয়ে শহরের ভি অ্যাসোসিয়েটিভের পরিচালক কার্লোস সামেদুকে সাথে নিয়ে শহীদ বেদিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো হয়। এর পরপরই বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ, একুশ উদযাপন পরিষদ, স্বরলিপি সাংস্কৃতিক শিল্পীগোষ্ঠী, চারণ সাংস্কৃতিক কেন্দ্র, বাংলাদেশ যুব ইউনিয়ন, বিভিন্ন রাজনৈতিক,  সাংস্কৃতিক ও সামাজিক সংগঠনসহ উদীচী ফ্রান্সের শিল্পী-সংগঠকরা ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। দিনের শুরুতে উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী ও স্বরলিপি শিল্পীগোষ্ঠীর শিল্পীরা প্রভাত ফেরির গান পরিবেশন করে। ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সভাপতি এম এ কাশেম ও সাধারণ সম্পাদক মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে ফ্রান্স আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা মেট্রো হোসের অস্থায়ী শহীদ মিনারে একুশের প্রথম প্রহরে ফুল দিয়ে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ফ্রান্স আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি বেনজির আহমেদ সেলিম , ফ্রান্স আওয়ামী লীগের প্রধান উপদেষ্টা নাজিম উদ্দিন আহমেদ, রাজনৈতিক উপদেষ্টা পরিষদের চেয়ারম্যান ওয়াহিদ বার তাহের, সামাজিক উপদেষ্টা চেয়ারম্যান মিজান চৌধুরী মিন্টু ও সহ সভাপতি বাবু অবনী চন্দ্র। এছাড়া এ সময় উদীচী ফ্রান্স সংসদ, স্বরলিপি শিল্পী গোষ্ঠী, স্বরলিপি সাংস্কৃতিক শিল্পী গোষ্ঠী, মাটির সুর, শাহজালাল স্পোটিং ক্লাবসহ বিভিন্ন সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন শহীদ বেদীতে ফুল দিয়ে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। আইফেল টাওয়ারের কাছে মানবাধিকার চত্বরে একুশ উদযাপন পরিষদ, ফ্রান্স শাখা এবং ঐতিহাসিক রিপাবলিক চত্বরে সম্মিলিত একুশ উদযাপন পরিষদ, ফ্রান্স শাখা একুশের ভাষা শহীদদের স্মরণে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানায়। ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা জানাতে বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন উপস্থিত হলেও প্রশাসনিক জটিলতার কারণে শহীদ মিনার নির্মাণ করতে না পারায় সকলে প্রতিকী পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। আইফেল টাওয়ারের মানবাধিকার চত্বরে উপস্থিত ছিলেন ফ্রান্সে বাংলাদেশ দূতাবাসের বাণিজ্য সচিব মো. ফিরোজ উদ্দিন। এদিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ইউনেস্কো সদর দপ্তরে একটি সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে ইউনেস্কোয় বাংলাদেশি স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত অংশ নেন। আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারি, রোববার উদীচী ফ্রান্স সংসদের উদ্যোগে তিন দিনব্যাপী অনুষ্ঠানের শেষ দিনে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ওবারভিলিয়ে শহরের স্পেস রনদি হলে অনুষ্ঠিত হবে বলে জানায় আয়োজকরা।

 

মালয়েশিয়ায় বৈধ শ্রমিক হতে নিবন্ধন শুরু আজ

করতোয়া ডেস্ক : মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশিসহ বিদেশি অবৈধ শ্রমিকরা নতুন করে নিবন্ধনের সুযোগ পাচ্ছেন বলে জানিয়েছে মালয়েশিয়ার অভিবাসন মন্ত্রণালয়। আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারি থেকে ৩০ জুন পর্যন্ত এই নিবন্ধনে নতুন শ্রমিকরা প্রাথমিকভাবে এক বছরের জন্য ই-কার্ড (এনফোর্সমেন্ট কার্ড) পাবেন। এই ই-কার্ডের মেয়াদ থাকবে ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ সাল পর্যন্ত। এই সময়ের মধ্যে গতবছর থেকে শুরু হওয়া রি-হায়ারিং পদ্ধতিতে শ্রমিককে নির্দিষ্ট মালিকের মাধ্যমে বৈধ ভিসা করতে হবে।

মালয়েশিয়ার ইমিগ্রেশন মহাপরিচালক মুস্তাফার আলী নিয়োগকর্তাদের কোনো এজেন্ট বা দালাল দিয়ে ই-কার্ডের নিবন্ধন না করতে সতর্ক করেন। তিনি বলেন, নিয়োগকর্তাদের তাদের প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দিয়ে নিবন্ধন করতে হবে এবং ই-কার্ড প্রসেসিংয়ের জন্য দুই দিন সময় লাগবে। যারা ইতোমধ্যে রি-হায়ারিং এ নিবন্ধিত হয়েছে তাদের নতুন করে ই-কার্ড (এনফোর্সমেন্ট কার্ড) নিতে হবে না। মালয়েশিয়ার যে কোনো প্রদেশের ইমিগ্রেশনে এ নিবন্ধন করা যাবে। ই-কার্ডের মেয়াদ এক বছর এবং এই এক বছরের মধ্যে নিয়োগকর্তাদের তাদের শ্রমিকদের দিয়ে নিজ নিজ হাই কমিশন থেকে পাসপোর্ট এবং অন্যান্য পারমিট করতে হবে। ই-কার্ড নিবন্ধন সম্পূর্ণ ফ্রি। শুধু পাঁচটি সেক্টরের জন্য ই-কার্ডের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

এগুলো হলো- প্লানটেশন, এগ্রিকালচার, ইন্ডাস্ট্রিয়াল, কনস্ট্রাকশন এবং সার্ভিস সেক্টর। এই ই-কার্ডের মাধ্যমে বিভিন্ন দেশের প্রায় দশ লাখ অবৈধ শ্রমিক নিবন্ধিত হবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। মালয়েশিয়ায় অবৈধ বাংলাদেশির সংখ্যা কত তা জানতে চেয়ে বাংলাদেশ হাই-কমিশনের লেবার কাউন্সিলর সায়েদুল ইসলামকে ফোন করলে তিনি বলেন, অবৈধ বাংলাদেশির সংখ্যা কত হতে পারে এটার কোনো ধারণা আমাদের কাছে নেই। প্রবাসী বাংলাদেশি গৌতম রায় বলেন, মালয়েশিয়ায় আড়াই লক্ষের বেশি অবৈধ বাংলাদেশি আছেন। যাদের পারমিট নেই, এবং যারা রি-হায়ারিং নিবন্ধন করেননি তারা ই-কার্ডের জন্য নিজ নিজ মালিকের মাধ্যমে নিবন্ধন করে নিতে পারবেন।

লন্ডনে সাংবাদিক শিমুল হত্যার প্রতিবাদ

করতোয়া ডেস্ক : যুক্তরাজ্যের লন্ডনে প্রবাসী বাংলাদেশি সাংবাদিকরা ‘দৈনিক সমকাল’-এর সাংবাদিক আব্দুল হাকিম শিমুল হত্যাসহ সারাদেশে সাংবাদিকদের ওপর মিথ্যা মামলা, নির্যাতন ও হত্যার প্রতিবাদ জানিয়ে সুষ্ঠু বিচারের দাবিতে প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানবন্ধন করেছে। স্থানীয় সময় সোমবার পূর্ব লন্ডনের আলতাব আলী পার্কে লন্ডনে কর্মরত প্রবাসী বাংলাদেশি সাংবাদিকদের সংগঠন ‘বৃটিশ-বাংলাদেশী সাংবাদিকবৃন্দ’ এ প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করে। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন ‘লন্ডন বাংলা প্রেস ক্লাব’-এর সভাপতি সৈয়দ নাহাস পাশা এবং পরিচালনা করেন এসএ টিভির বিশেষ প্রতিনিধি হেফাজুল করিম রকিব। সভায় স্বাগত বক্তব্য দেন ‘সাপ্তাহিক জনমত’-এর বিশেষ প্রতিনিধি আহাদ চৌধুরী বাবু। সভায় অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন ‘সাপ্তাহিক লন্ডন বাংলা’-এর সম্পাদক কে এম আবু তাহের চৌধুরী, ‘সুরমা’র সম্পাদক আহমদ ময়েজ, ‘বাংলানিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম’-এর বিশেষ প্রতিনিধি সৈয়দ আনাস পাশা, সাংবাদিক মতিয়ার চৌধুরী, ‘লন্ডন বাংলা প্রেস ক্লাব’-এর সহ সভাপতি মাহবুব রহমান, এটিএন বাংলা ইউকে’র সিনিয়র রিপোর্টার মোস্তাক বাবুল। এছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন ‘ব্রিকলেইন’ সম্পাদক জুয়েল রাজ, ‘লন্ডন বাংলা প্রেস ক্লাব’-এর ট্রেনিং সেক্রেটারি ইব্রাহিম খলিল, ইনফরমেশন সেক্রেটারি সালেহ আহমদ, ইভেন্ট সেক্রেটারি (বিজয়ী) তওহীদ আহমদ,কার্যকরী পরিষদের সদস্য পলি সুলতান, ‘বাংলা টিভি’র বার্তা সম্পাদক সরোয়ার হোসন, ‘ডেইলি স্টার’-এর যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি আনসার আহমদ উল্লাহ, ‘লন্ডন বিডি নিউজ ২৪’- এর সম্পাদক জাকির হোসেন কয়েস। উপস্থিত ছিলেন ‘এনটিভি’ ইউরোপের চিফ রিপোর্টার আকরাম হোসেন, সাংবাদিক আবদুর কাদির মুরাদ, এনটিভি ইউরোপের উপস্থাপক আতাউল্যাহ ফারুক, সাংবাদিক মাহবুব কানছুর, ডিবিসি যুক্তরাজ্য প্রতিনিধি তারেক চৌধুরী, চ্যানেল এস রিপোর্টার রেজাউল করিম মৃদা, মোহাম্মদ কাউসার, এনটিভি ইউরোপের রিপোটার আহসানুল আ¤ি॥^য়া শুভন, সাংবাদিক রফিকুর ইসলাম এমদাদ, লন্ডন বিডি নিউজ ২৪-এর চেয়ারম্যান আবদুল বাছিত বাদশাহ। আরও উপস্থিত ছিলেন কবি সিহাবুজ্জামান কামাল, ‘বিশ্ব বাংলা ২৪.কম’-এর সম্পাদক শাহ রহমান বেলাল, ‘এল বিটিভি ২৪’- এর রিপোর্টার জুবায়ের আহমদ, সাংবাদিক আলাউদ্দিন রাসেল, ‘আমাদের প্রতিদিন’ সম্পাদক আনোয়ার শাহজান, মানবাধিকার কর্মী কানিজ ফাতেমা, ফয়সাল জামিল, ডলার বিশ্বাস, লুৎফুর রহমান লিকন, লুৎফুর রহমান, আবদুল রহিম, সাংবাদিক আফসার উদ্দিন, বদরুজ্জামান বাবু, এহসানুল হক তানিম।

মালয়েশিয়ায় দুর্ঘটনায় বাংলাদেশি নিহত

মালয়েশিয়ার সেরেমবানে সড়ক দুর্ঘটনায় বাংলাদেশি এক লরি চালক ও তার সহকারীর মৃত‌্যু হয়েছে; আহত হয়েছেন আরও একজন।

স্থানীয় সময় রোববার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে সেরেমবানের জালান বাহাউ কেমায়ান সড়কের জেমপলে এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে মালয়েশিয়ার রাষ্ট্রায়ত্ত বার্তা সংস্থা বারনামার খবর।  

জেমপরের পুলিশ সুপার নূরজাইনি মোহাম্মদ নূরের বরাত দিয়ে বারনামা জানিয়েছে, নিহত বাংলাদেশির নাম তানভীর আহমেদ সিদ্দিকী, তার বয়স ৪৬ বছর।

তানভীরের মরদেহ জেমপল হাসপাতালের হিমঘরে রাখা হয়েছে। তবে তার বাড়ি বাংলাদেশের কোথায় তা জানা যায়নি।

পুলিশ সুপার জানান, হিমায়িত মুরগির মাংস বহনকারী ওই লরি সড়কের একটি মোড় ঘোরার সময় উল্টে গেলে চালক তানভীর এবং তার সহকারী ইসমাইল ফাদলিজাহ (৪৬) ঘটনাস্থলেই নিহত হন। চালকের আরেক সহকারী সিয়াবান মো. আমিনকে (২৯) গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

ফাদলিজাহ ও আমিন মালয়েশিয়ার নাগরিক বলে স্থানীয় সংবাদমাধ‌্যমগুলোর তথ‌্য।

আরব আমিরাতে দুর্ঘটনায় দুই বাংলাদেশি নিহত

করতোয়া ডেস্ক : সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাস আল-খাইমাহতে একটি প্রাইভেট কার দুর্ঘটনায় পড়ে দুই বাংলাদেশি নিহত হয়েছেন; আহত হয়েছেন আরও তিন জন। নিহতরা হলেন- মুহাম্মদ আবদুর রহিম (৪২) ও মুহাম্মদ আলমগীর (৪৫)। তাদের বাড়ি চট্টগ্রামের ফটিকছড়িতে।  মঙ্গলবার স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ৭টার দিকে রাস আল-খাইমাহর হুজাম রোডে ওই দুর্ঘটনা ঘটে বলে আরব আমিরাতে বাংলাদেশ দূতাবাসের লেবার কাউন্সিলর আরমান উল্লাহ চৌধুরী জানান। তিনি বলেন, আমরা এ ব্যাপারে দুবাই কনস্যুলেটের সঙ্গে যোগাযোগ রেখেছি। দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত মুহাম্মদ আজিমের বাড়ি চট্টগ্রামের হাটহাজারীতে। তাকে রাস আল-খাইমাহর ‘আল  সাকার’ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। জান রনি বেলাল নামে একজন রাস আল-খাইমাহ থেকে টেলিফোনে জানান, প্রাইভেট কারটির চালক নিয়ন্ত্রণ হারালে গাড়িটি একটি বিদ্যুতের খুঁটিতে ধাক্কা খেয়ে দুমড়ে-মুচড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই একজন ও হাসপাতালে নেওয়ার পর আরেকজন মারা যান। আহতদের মধ্যে দুজন প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। গুরুতর আহত আরেকজন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

 

ভাষার মাসে নিউইয়র্কে ফের চালু হচ্ছে বাংলা স্কুল

করতোয়া ডেস্ক : ভাষার মাস ফেব্রুয়ারিতে আবারও চালু হচ্ছে বাংলাদেশ সোসাইটির বাংলা স্কুল। বাংলাদেশ সোসাইটির ভবনে রোববার সন্ধ্যায় কার্যকরী কমিটির প্রথম সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়।  ১ ফেব্রুয়ারি থেকে শিক্ষার্থীদের নিবন্ধন করাতে অভিভাবকদের অনুরোধ জানানো হয়েছে। নবনির্বাচিত কার্যকরী পরিষদ দায়িত্ব নেওয়ার পর এই প্রথম আনুষ্ঠানিকভাবে সভা হলো। সোসাইটির সভাপতি কামাল আহমেদের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক রুহুল আমীন সিদ্দিকীর সঞ্চালনায় সভায় সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুর রহিম হাওলাদার, সহ-সাধারণ সম্পাদক এম. কে. জামান, কোষাধ্যক্ষ মোহাম্মদ আলী, সাংস্কৃতিক সম্পাদক মনিকা রায়, জনসংযোগ ও প্রচার সম্পাদক রিজু মোহাম্মদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। সভায় সভাপতি কামাল আহমেদ বলেন, সবাই অনেক আশা ভরসা নিয়ে আমাদের নির্বাচিত করেছেন। সবার প্রতি আমাদের দায়বদ্ধতা রয়েছে। সেই দায়বদ্ধতা থেকেই আমরা কমিউনিটির জন্য কাজ করে যেতে চাই।

যুক্তরাষ্ট্রে আরো একটি সম্মাননা পেলেন মিঠুন মোস্তাফিজ

করতোয়া ডেস্ক : বৈশাখী টেলিভিশনের এসাইনমেন্ট এডিটর মিঠুন মোস্তাফিজ যুক্তরাষ্ট্রের ‘দ্য পেড্রো রড্রিগুয়েজ ফাউন্ডেশন’ এর সম্মাননা পেয়েছেন।

বাংলাদেশসহ আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে তাকে এই সম্মাননা জানায় নিউ জার্সি অঙ্গরাজ্যের ‘দ্য পেড্রো রড্রিগুয়েজ ফাউন্ডেশন’। এর আগে তিনি নিউ জার্সি অঙ্গরাজ্যের সিটি অব প্যাটাসনের সম্মাননা পান।
গত ২৪ নভেম্বর ফাউন্ডেশন চেয়ারম্যান ও সিটি অব প্যাটারসনের ডেপুটি মেয়র মি. পেড্রো রড্রিগুয়েজ আনুষ্ঠানিকভাবে তার হাতে সম্মাননা সনদ তুলে দেন।

গত অক্টোবর থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত বৈশাখী টেলিভিশনের জন্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচন পূর্ব, নির্বাচনকালীন ও নির্বাচন পরবর্তী তিনটি পর্যায়ে সংবাদ কাভার করতে যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করেন মিঠুন মোস্তাফিজ। এ সময়ে স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক দর্শকদের জন্য বাংলা ও ইংরেজি মাধ্যমে তার বিশ্লেষণধর্মী ও বহুমাত্রিক কাভারেজের প্রশংসা করে ‘দ্য পেড্রো রড্রিগুয়েজ ফাউন্ডেশন’। পাশাপাশি নিউ জার্সি অঙ্গরাজ্যের সিটি অব প্যাটারসনের বাংলাদেশি কমিউনিটি ও সিটি কর্তৃপক্ষের বিভিন্ন বিষয় গুরুত্বের সাথে বৈশ্বিক দর্শকের কাছে তুলে ধরায় কৃতজ্ঞতা জানান ‘দ্য পেড্রো রড্রিগুয়েজ ফাউন্ডেশন’ এর চেয়ারম্যান ও সিটি অব প্যাটারসনের ডেপুটি মেয়র মি. পেড্রো রড্রিগুয়েজ।

মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশিসহ ৪৮ অভিবাসীর দণ্ড

করতোয়া ডেস্ক : মালয়েশিয়ায় অবৈধ অভিবাসনের দায়ে আট বাংলাদেশিসহ ৪৮ জন অভিবাসীর সাজা হয়েছে বলে দেশটির সংবাদমাধ্যম স্টার অনলাইন জানিয়েছে।
পত্রিকাটি বলছে, অভিবাসন আইনে মোট ৫৩ জন বিদেশিকে অভিযুক্ত করেছে আদালত। এদের মধ্যে এক রোহিঙ্গাসহ মিয়ানমারের ২৮ নাগরিক, ১১ ইন্দোনেশীয়, ভিয়েতনামের দুজন এবং কম্বোডিয়া ও নেপালের একজন করে আছেন।

এদের বেশিরভাগই কারখানার শ্রমিক।
অভিযুক্তদের মধ্যে ৪৮ জন দোষ স্বীকার করলে আদালত তাদের এক থেকে ছয় মাসের কারাদণ্ড দেয়। তাদের এই দণ্ড নভেম্বরে গ্রেপ্তারের দিন থেকে কার্যকর হওয়ার কথা।
আগামী ২৪ জানুয়ারি বাকি পাঁচজনের বিষয়ে শুনানির দিন রাখা হয়েছে। এদের মধ্যে দুজন বাংলাদেশি আছেন।
ভ্রমণের বৈধ কাগজপত্র না থাকার অভিযোগে গ্রেপ্তার এই দুই বাংলাদেশি তাদের পক্ষে দোভাষী নিয়োগের সুযোগ চেয়ে আদালতে সময়ের আবেদন করেন।

ব্রিটেনের রাণীর কাছে হাইকমিশনার কাওনাইনের পরিচয়পত্র পেশ

করতোয়া ডেস্ক : যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশের নতুন হাইকমিশনার মো. নাজমুল কাওনাইন রাণী দ্বিতীয় এলিজাবেথের কাছে পরিচয়পত্র পেশ করেছেন। শুক্রবার বাকিংহাম প্যালেসে ব্রিটেনের রাণীর কাছে তিনি এই পরিচয়পত্র পেশ করেন বলে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়, পরিচয়পত্র পেশের পর সাক্ষাতে রাণী এলিজাবেথ হাইকমিশনার নাজমুল কাওনাইনের মাধ্যমে বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উষ্ণ অভ্যর্থনা জানান। যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশের তৎকালীন হাইকমিশনার এম এ হান্নান অবসরে যাওয়ার পর গত ২৮ অক্টোবর লন্ডন মিশনে যোগ দিয়ে হাই কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন কাওনাইন। এর আগে গত ২৪ সেপ্টেম্বর নাজমুল কাওনাইনকে যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশের হাইকমিশনার হিসেবে নিয়োগ দেয় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়য়। বাংলাদেশ কর্ম কমিশন (বিসিএস) ১৯৮৪ ব্যাচের পররাষ্ট্র ক্যাডারের কর্মকর্তা নাজমুল কাওনাইন লন্ডন মিশনে যোগ দেওয়ার আগে ইন্দোনেশিয়ায় বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এর আগে তিনি সংযুক্ত আরব আমিরাতে রাষ্ট্রদূত হিসেবে এবং যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন ডিসির বাংলাদেশ দূতাবাস, জেনেভায় জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী মিশন এবং ইসলামাবাদ ও লন্ডনে বাংলাদেশ হাই কমিশনে বিভিন্ন পদে দায়িত্ব পালন করেন। ঢাকা মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস পাস করার পর তিনি জেনেভার গ্রাজুয়েট ইনস্টিটিউট অব ইন্টারন্যাশনাল অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজ থেকে কূটনীতি ও আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিষয়ে পোস্ট গ্রাজুয়েট ডিপ্লোমা সম্পন্ন করেন।

দুবাইয়ে দুর্ঘটনায় তিন বাংলাদেশির মৃত্যু

করতোয়া ডেস্ক : দুবাইয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় পাঁচজন বিদেশি শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে, যাদের তিনজন বাংলাদেশি বলে দেশটির সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে। রোববার ভোরে দুবাইয়ের আল রাবাত সড়কে একটি ট্রাকের সঙ্গে শ্রমিকবাহী বাসের সংঘর্ষে প্রাণহানির এ ঘটনা ঘটে বলে দুবাইভিত্তিক খালিজ টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। এ ঘটনায় আরও সাতজন আহত হয়েছেন, যাদের তিনজনের অবস্থা গুরুতর। নিহত অপর দুই শ্রমিক ভারতীয়। নিহত বাংলাদেশিরা ক্লিনকো ক্লিনিং সার্ভিসেস অ্যান্ড বিল্ডিং মেইনটেন্যান্স নামের একটি কোম্পানিতে কাজ করতেন। তাদের একজন শরীয়তপুরের মুদাসিসিস (৪৯) বলে খালিজ টাইমস জানিয়েছে।

স্থানীয় এক পুলিশ কর্মকর্তার বরাত দিয়ে পত্রিকাটি জানায়, দুবাইয়ের ফেস্টিভ্যাল সিটির একটি ভবনে কাজ করতে কোম্পানির ১৯ জন শ্রমিক নিয়ে সেদিকে যাচ্ছিল কোস্টারটি। গন্তব্যে পৌঁছাতে মাত্র কয়েক কিলোমিটার দূরে একটি ট্রাকের সঙ্গে সেটির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে ঘটনাস্থলেই চারজনের মৃত্যু হয়। আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিলে সেখানে আরেকজন মারা যান। নিহতদের লাশ রশিদ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। নিহত মুদাসিসির ছেলে ফেরদৌসও (২৩) দুবাই প্রবাসী। বাবার মৃত্যুর খবরে ভেঙে পড়া এই যুবক খালিজ টাইমসকে বলেন, ‘আমি জানি না কী করব। বাড়িতে খবর দিয়েছি।’



Go Top