সকাল ১১:০৪, মঙ্গলবার, ২৪শে জানুয়ারি, ২০১৭ ইং
/ বরিশাল

বরিশাল প্রতিনিধি : বরিশাল সদর উপজেলায় বাসের চাপায় এক পথচারী নিহত হয়েছেন; আহত হয়েছেন আর পাঁচজন।  রোববার বেলা সাড়ে ১১ টার দিকে নগরীর কালিজিরা সেতু সংলগ্ন এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে কোতোয়ালি থানার এসআই আবু তাহের জানান। নিহত বেলাল হোসেন (৩৫) কালিজিরা এলাকার বাসিন্দা। আহত শিলা রানী, মোতালেব হাওলাদার ও হারুনকে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহত অপর দুইজনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।তাৎণিকভাবে তাদের পরিচয় জানা য়ায়নি।    

এসআই তাহের জানান, ঝালকাঠী থেকে বরিশালগামী গাজী এন্টারপ্রাইজ পরিবহনের একটি বাস পথচারী বেল্লালকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে পুলিশ তার লাশ ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠায় বলে জানান তিনি।

বরিশালে অস্ত্র-গুলিসহ যুবক আটক

বরিশাল প্রতিনিধি: বরিশালের বাকেরগঞ্জে অস্ত্র ও গুলিসহ মো. রুহুল আমিন তালুকদার (২৬) নামে এক যুবককে আটক করেছে র‌্যাব-৮। গতকাল শনিবার বেলা সাড়ে ১১টায় এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি জানানো হয়। রুহুল আমিন তালুকদার ঝালকাঠি জেলার নলছিটি থানার সূর্যপাশা বড় তালুকদার বাড়ির এবিএম আমির হোসেন তালুকদারের ছেলে। বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, শুক্রবার রাতে বাকেরগঞ্জের বাখরকাঠি বাজারে র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করে রুহুল আমিন। এসময় র‌্যাব সদস্যরা পিছু নিয়ে তাকে আটক করে। আটকের পর রুহুল আমিনের হাতে থাকা ব্যাগটি তল্লাশি করলে একটি বিদেশি রিভলবার, একটি ওয়ান শুটার গান, রিভলবারের দুই রাউন্ড তাজা গুলি এবং তিন রাউন্ড বন্দুকের কার্তুজ উদ্ধার করা হয়। এ ব্যাপারে সকালে র‌্যাব-৮ বরিশাল সিপিএসসি’র ডিএডি মো. আমজাদ হোসেন বাদী হয়ে বরিশাল জেলার বাকেরগঞ্জ থানায় অস্ত্র আইনে একটি মামলা দায়ের করেন।

মাদারীপুরে বাস নসিমন সংঘর্ষে দুইজন নিহত

মাদারীপুর প্রতিনিধি : মাদারীপুরের সদর উপজেলায় বাসের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষে নসিমনেরদুই যাত্রী নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরও অন্তত তিনজন।  শুক্রবার দুপুরে সমাদ্দার সেতু এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে বলে সদর থানার ওসি জিয়াউল মোরশেদ জানান। তাৎক্ষণিকভাবে হতাহতদের পরিচয় জানা যায়নি। আহতদের মাদারীপুর সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।  ওসি জিয়াউল বলেন, বেলা ১২ টার দিকে বরিশাল থেকে ঢাকাগামী হানিফ পরিবহনের একটি বাসের সঙ্গে বিপরীতমুখী একটি নসিমনের সংঘর্ষ হয়। এ সময় ঘটনাস্থলেই নসিমনের দুই যাত্রী নিহত হয় বলে জানান তিনি।

 

ঝালকাঠিতে ডুবে যাওয়া ট্রলার উদ্ধার হলেও নিখোঁজ ৩ যাত্রীর সন্ধান মেলেনি

ঝালকাঠি প্রতিনিধি : ঝালকাঠিতে স্টিমারের ধাক্কায় সুগন্ধা নদীতে ডুবে যাওয়ার দুইদিনের মাথায় ট্রলার উদ্ধার করা গেলেও নিখোঁজ তিন যাত্রীর সন্ধান মেলেনি। রোববার সন্ধ্যায় সুগন্ধা নদীর পৌর খেয়াঘাটের দুর্ঘটনাস্থল থেকে ট্রলারটি উদ্ধার করা হয় বলে ঝালকাঠি ফায়ার সার্ভিসের ভারপ্রাপ্ত স্টেশন কর্মকর্তা মো. গোলাম রসূল জানান। গত শুক্রবার সদর উপজেলার পোনাবালিয়া ইউনিয়নের রাজাপুর গ্রামের খেয়াঘাট থেকে পৌরসভা খেয়াঘাটে যাওয়ার পথে ১১ জন যাত্রী নিয়ে ট্রলারটি সুগন্ধা নদীতে ডুবে যায়। দুর্ঘটনার পর চালকসহ ট্রলারের আট যাত্রী স্থানীয় জেলেদের সহায়তায় তীরে উঠতে সক্ষম হলেও তিন যাত্রী নিখোঁজ হয়। তারা হলেন- পোনাবালিয়া ইউনিয়নের ইছালিয়া গ্রামের রাজ্জাক মল্লিক রাজা (৩২), দেউরি গ্রামের তসলিম হাওলাদার (৫০) ও মহদিপুর গ্রামের আলম জমাদ্দার (৪৫) । ফায়ার সার্ভিস কর্মকর্তা গোলাম রসূল বলেন, দুর্ঘটনার পর থেকে ফায়ার সার্ভিস নিখোঁজদের সন্ধানে উদ্ধার তৎপরতা অব্যাহত রেখেছে। রোববার ট্রলারটি উদ্ধার করা গেছে; তবে নিখোঁজ ব্যক্তিরা স্রোতের টানে নদীর অন্য এলাকায় সরে যেতে পারে ধারণা করা হচ্ছে। তাদের খূঁজতে সুগন্ধার আশেপাশের কয়েক কিলোমিটার এলাকায় নৌযান নিয়ে সন্ধান চালানো হচ্ছে বলে জানান তিনি। এ দিকে ট্রলারটি উদ্ধারের সময় নিখোঁজ যাত্রীদের পরিবারের সদস্যরা ও এলাকাবাসী  সুগন্ধার দুই পাড়ে ভিড় করেন। ঝালকাঠির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আব্দুর রকিব জানান, শনিবার নিখোঁজদের পরিবারের সদস্যরা থানায় জিডি করেছেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর উপস্থিতিতে পটুয়াখালীতে ১২ জলদস্যুর অস্ত্রসহ আত্মসমর্পণ


পটুয়াখালী প্রতিনিধি : পটুয়াখালীর কুয়াকাটায় সুন্দরবনের নোয়া বাহিনীর প্রধানসহ ১২ জলদস্যু বিপুল অস্ত্র ও গোলাবারুদসহ আত্মসমর্পণ করেছে। গতকাল শনিবার বেলা ১টার দিকে কুয়াকাটার রাখাইন মার্কেট মাঠে আনুষ্ঠানিকভাবে তারা স্বরাষ্টমন্ত্রী মো. আসাদুজ্জামান খাঁন কামালের কাছে অস্ত্র জমা দিয়ে আত্মসমর্পণ করেন। অনুষ্ঠানে আগে আত্মসমর্পণ করা ৬০     
জলদস্যুর প্রত্যেক পরিবারকে অনুদান হিসেবে ২০ হাজার টাকা ও কম্বল বিতরণ করেন মন্ত্রী। ওই ৬০ জলদস্যু বর্তমানে কারাগারে রয়েছেন। আত্মসমর্পণকারীরা হলেন নোয়া বাহিনীর প্রধান মো. বাকি বিল্লাহ মিয়া (৩৭), মো. মনিরুল শেখ (৩৮), মো. মানজুর মোল্লা ওরফে রাঙ্গা (৪২), মো. মুক্ত শেখ (৩৭), মো. তরিকুল শেখ (৬০), মো. আকবর শেখ (৪২), মো. কিবরিয়া মোড়ল (৪০), মো. জাহাঙ্গীর শেখ ওরফে মেজ ভাই (৪৮), মো. আল আমিন সিকদার (৫০), মো. ইউনুচ শেখ ওরফে দুলাল ঠাকুর (৪০), মো. মিলাদুল মোল্লা ওরফে কালু ডাকাত (২৮) ও মো. মোশারফ হোসেন (৩৭)।

 এদের বাড়ি বাগেরহাটের মংলা ও রামপাল উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় বলে র‌্যাব জানিয়েছে। র‌্যাব-৮ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মো. আনোয়ার উজ জামান জানান, আত্মসমর্পণকালে নোয়া মিয়ার নেতৃত্বে জলদস্যুরা একে একে র্যা বের মাধ্যমে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে সাতটি বিদেশি একনালা বন্দুক, আটটি বিদেশি দোনালা বন্দুক, দুইটি বিদেশি এয়ার রাইফেল, তিনটি ওয়ান শুটার গান, একটি রাইফেল, একটি বিদেশি রাইফেল, তিনটি বিদেশি কাটা বন্দুক এবং ১১০৫ রাউন্ড তাজা গোলাবারুদ জমা দিয়েছেন। র‌্যাব-৮ আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে র‌্যাবের মহাপরিচালক মো. বেনজীর আহমেদ, র‌্যাব-৮ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মো. আনোয়ার উজ জামানসহ আইনশৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তা ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য ও স্থানীয় মৎস্য ব্যবসায়ীরাসহ নানা শ্রেণিপেশার কয়েকশ মানুষ উপস্থিত ছিলেন। 

কালিগঙ্গা নদী থেকে শ্রমিকের মরদেহ উদ্ধার


পিরোজপুর প্রতিনিধি : পিরোজপুরের নাজিরপুর উপজেলায় কালিগঙ্গা নদী থেকে মাহতাব খান (৩৫) নামে এক শ্রমিকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে শ্রমিকের মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। মাহাতাব খান উপজেলার উত্তর সাতকাছেমিয়া গ্রামের মৃত আজাহার আলীর ছেলে। তিনি স্থানীয় একটি ইটভাটায় কাজ করতেন।
 
পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ৩ জানুয়ারি সকাল ৯টার দিকে ফোন পেয়ে কাজের উদ্দেশে ইট ভাটায় চলে যান। এরপর থেকে তিনি নিখোঁজ হন। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার মাহাতাবের ভাই ফারুখ খান থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন। শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে কালিগঙ্গা নদীতে মরদেহ ভাসতে দেখে পুলিশে খবর দেয় স্থানীয়রা। পরে পুলিশ বেলা সাড়ে ১১টায় মরদেহটি উদ্ধার করে। নাজিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাবিবুর রহমান  জানান, নিহতের মাথায় ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এ ঘটনায় হত্যা মামলা দায়ের করার প্রস্তুতি চলছে। 

ঝালকাঠিতে সড়ক দুর্ঘটনায় কিশোর নিহত


ঝালকাঠি প্রতিনিধি : ঝালকাঠির নলছিটি উপজেলার আমিরাবাদে সড়ক দুর্ঘটনায় রায়হান (১৫) নামে এক কিশোর নিহত হয়েছে।  সোমবার সকাল ১০টায় তার মৃত্যু হয়। রায়হান ঝালকাঠির পূর্বচাঁদকাঠি এলাকার সোহেল সিকদারের ছেলে।

নিহতের স্বজন মো. মাসুক  জানান, রায়হান প্রাণ কোম্পানিতে চাকরি করতো। সকালে সে আমিরাবাদ এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় আহত হয়েছে খবর পেয়ে তার সন্ধানে বরিশাল শের-ই-বাংলা চিকিৎসা মহাবিদ্যালয় (শেবাচিম) হাসপাতালে এসে মৃত্যুর বিষয়টি জানতে পারেন। তবে কীভাবে দুর্ঘটনাটি ঘটেছে তা তিনি জানতে পারেন নি। এদিকে দুর্ঘটনার সময় সে দায়িত্বরত থাকলেও এখন পর্যন্ত কোম্পানির কোন লোককে তারা খুঁজে পাননি। শেবাচিম হাসপাতালের ওয়ার্ড মাস্টার আবুল কালাম জানান, রায়হানকে হাসপাতালে নিয়ে আসার পর জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। ময়নাতদন্তের জন্য তার মরদেহ হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে বলে জানান তিনি।

উজিরপুরে আগুনে পুড়ে বৃদ্ধার মৃত্যু

বরিশাল প্রতিনিধি : বরিশালের উজিরপুর উপজেলায় বাতির আগুনে পুড়ে মঞ্জু রানী গাইন (৬৫) নামে এক বৃদ্ধার মৃত্যু হয়েছে।  সোমবার সকালে বরিশাল শের-ই-বাংলা চিকিৎসা মহাবিদ্যালয় (শেবাচিম) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। তিনি উপজেলার ভরাকোঠা এলাকার মৃত সোহেল গাইনের স্ত্রী। এর আগে রোববার রাত পৌনে ৯টায় গুরুতর অবস্থায় তাকে হাসপাতালে ভর্তি করেন স্বজনরা।

স্বজনদের বরাত দিয়ে হাসপাতালের ওয়ার্ড মাস্টার আবুল কালাম  জানান, রোববার সন্ধ্যায় কেরোসিনের বাতি থেকে মশারিতে আগুন ধরে যায়। তা থেকে মঞ্জু রানীর শরীরের কাপড়ে আগুন লেগে যায়। এতে তিনি গুরুতর দগ্ধ হন। আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে স্বজনরা শেবাচিম হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে নিয়ে আসেন। এখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সকালে তার মৃত্যু হয়।

 

পিরোজপুর নিখোঁজ শিক্ষকের লাশ মিলল খালে

পিরোজপুর প্রতিনিধি : পিরোজপুর সদর উপজেলায় বাড়ি থেকে বেরিয়ে নিখোঁজ এক শিক্ষকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।  বুধবার সকালে শহরের সরকারি সোহরাওয়ার্দী কলেজ সংলগ্ন খাল থেকে ৮২ বছর বয়সী গৌরাঙ্গ লাল সাহার লাশ পাওয়া যায় বলে পিরোজপুর সদর থানার এসআই আল মামুন জানান। গৌরাঙ্গ শহরের মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক এবং হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদ জেলা শাখার সাবেক সভাপতি ছিলেন।

পিরোজপুর পৌরসভার কাউন্সিলর মিনারা বেগম বলেন, মঙ্গলবার রাত থেকে গৌরাঙ্গ লাল নিখোঁজ ছিলেন। পরিবারের লোকজন অনেক খোঁজাখঁজি করলেও তার কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি। সকালে স্থানীয়রা খালে তার লাশ ভাসতে দেখে থানায় খবর দিলে পুলিশ গিয়ে তার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠায় বলে জানান তিনি। গৌরাঙ্গ সাহার নাতি মিঠুন বলেন, মঙ্গলবার সকালে  জমি নিয়ে বিরোধের জেরে স্থানীয় আনসার আলী ও তার স্ত্রী বিউটি বেগম তাদের বাসায় গিয়ে দাদুকে হুমকি দেন। বিকালে দাদু বাসা থেকে বেরিয়ে যাওয়ার পর থেকে তার কোন হদিস মিলছিল না। রাত ১২ টা পর্যন্ত খোঁজাখুজি করেও তাকে পাওয়া যায়নি। সকালে পুলিশে কাছে খবর পেয়ে তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে দাদুর লাশ সনাক্ত করেন বলে জানান মিঠুন। সদর থানার ওসি মাসুমুর রহমান বিশ্বাস বলেন, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আনসার ও তার স্ত্রীকে থানায় নেওয়া হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পেলে মৃত্যুর কারণ জানা যাবে।

ভোলায় ভুল চিকিৎসায় শিক্ষার্থী মৃত্যুর অভিযোগ

ভোলা প্রতিনিধি : ভোলায় ভুল চিকিৎসায় নুপুর নামে এক স্কুলছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। নুপুর ভোলা সদর উপজেলার শিবপুর ইউনিয়নের মধ্য রতনপুর গ্রামের মো. সাজাহানের মেয়ে। সে পৌর বালিকা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও এ বছর জেএসসি পরীক্ষা দিয়েছে। ২৯ ডিসেম্বর তার রেজাল্ট বের হওয়ার কথা রয়েছে।

পারিবারিক সূত্র জানায়, সকাল থেকে নুপুর ডায়রিয়া রোগে আক্রান্ত হয়। সন্ধ্যায় মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে ভোলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এরপর হাসপাতালের চিকিৎসকরা তাকে একটি ইনজেকশন (কটসন) দেন।  এর কিছুক্ষণ পর নুপুর মারা যায়। এ বিষয়ে নুপুরের বাবা-মা অভিযোগ করে  বলেন, মেয়াদোত্তীর্ণ ইনজেকশন কিংবা ভুল চিকিৎসায় নুপুরের মৃত্যু হয়েছে। এদিকে, রাতেই নুপুরের স্বজনরা হাসপাতাল ভাঙচুরের চেষ্টা করলে সিভিল সার্জনসহ অন্য ডাক্তাতরা এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ বিষয়ে  বুধবার সকালে ভোলার সিভিল সার্জন ডা. রথীন্দ্রনাথ মজুমদার  জানান, এ ঘটনায় তদন্তের জন্য দুই সদস্যের টিম গঠন করা হয়েছে। ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তদন্তের রিপোর্ট জমা দিতে বলা হয়েছে।

পিরোজপুরে সাড়ে তিন হাজার কেজি জাটকাসহ ব্যবসায়ী আটক

পিরোজপুরের ভাণ্ডারিয়ায় দুইটি ট্রাক বোঝাই সাড়ে তিন হাজার কেজি জাটকাসহ (ছোট ইলিশ) এক মাছ ব্যবসায়ীকে আটক করেছে র‌্যাব। রবিবার বিকাল সাড়ে চারটার দিকে ভাণ্ডারিয়ার চরখালী ফেরীঘাট এলাকা থেকে দুই ট্রাকভর্তি এসব জাটকা আটক করা হয়ী।

এ সময় র‌্যাব সদস্যরা আব্দুস সালাম নামে এক মাছ ব্যবসায়ীকেও আটক করে। তিনি বরগুনার পাথরঘাটা পৌর শহরের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা মো. আব্দুল মজিদের ছেলে।

উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, বরগুনার পাথরঘাটা থেকে দুইটি ট্রাকে (ঢাকা-মেট্রো-ট-১৮৯২১৪ ও ঢাকা-মেট্রো-১৪৫৯৮২) ঝাটকা বোঝাই করে ভাণ্ডারিয়ার চরখালী ফেরীঘাট থেকে ঢাকায় পাঠানো হচ্ছিল। এ সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বরিশাল র‌্যাব-৮ র‌্যাবের উপ-সহকারী পরিচালক মো. শাহরিয়ারের নেতৃত্বে র‌্যাব সদস্যরা মাছ ভর্তি ট্রাক দুটি আটক করে। র‌্যাবের উপস্থিতি টেরপেয়ে ট্রাকের চালক ও হেলপার পালিয়ে যায়। এ সময় র‌্যাব সদস্যরা আব্দুস সালাম নামে এক মাছ ব্যবসায়ীকে আটক করে। আটক করা মাছ উপজেলা প্রশাসনের কাছে দেওয়া হলে এগুলো এতিমখানা ও আশ্রয়ন প্রকল্পের অতিদরিদ্রদের মাঝে বিতরণ করা হয়।

অপরদিকে আটক মাছ ব্যবসায়ী আবদুস সালামকে ভাণ্ডারিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ রুহুল কুদ্দুসের কাছে হাজির করা হলে তিনি সন্ধ্যায় ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ছয় মাসের কারাদণ্ডাদেশ দেন।

গৃহকর্মী ধর্ষণ মামলায় বিএনপি নেতা কারাগারে

ঝালকাঠিতে গৃহকর্মী (১৪) ধর্ষণ মামলার চার্জশিটভুক্ত পলাতক আসামি বিএনপি নেতাকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। সোমবার নলছিটি উপজেলা বিএনপির বন ও পরিবেশ সম্পাদক ও নলছিটি উপজেলা সহ-সভাপতি কবির জোমাদ্দার আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করেন। জেলা ও দায়রা জজ রমনী রঞ্জন চাকমা তার জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠান।

কবির জোমাদ্দারের বিরুদ্ধে দায়ের মামলায় ঝালকাঠি নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করায় সোমবার তিনি আদালতে আত্মসমর্পণ করেন।
মামলা সূত্রে জানা গেছে, পূর্ব গোদন্ডা গ্রামের বিএনপি নেতা কবির জমাদ্দার তার গৃহকর্মী নবম শ্রেণি প ড়ুয়া কিশোরীকে ২০১৫ সালের ১৭ জুলাই পিস্তল ঠেকিয়ে ধর্ষণ করেন। বিষয়টি গোপন রাখতে কবির জমাদ্দার ওই কিশোরীকে খুনের হুমকি দেন। এমনকি বাবা-মাকেও গুলি করে হত্যা করার হুমকি দেন। এরপর ভয়ভীতি দেখিয়ে কয়েক মাস ধর্ষণ করায় অন্তসত্ত্বা হয়ে পড়ে ওই কিশোরী। পরে তাকে বরিশালের এক ক্লিনিকে নিয়ে গর্ভপাত করান। কিন্তু মেয়েটি অসুস্থ হয়ে পড়লে গত ৮ জানুয়ারি বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি করার পর বিষয়টি জানাজানি হয়। ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে ৩১ জানুয়ারি কবির জমাদ্দার ধর্ষিতা, তার বাবা, চাচতো ভাই-বোনসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে চুরির মিথ্যা মামলা করেন। ওই মামলায় জামিন লাভের পর ধর্ষিতা কিশোরী ঝালকাঠি নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনাল আদালতে কবির জমাদ্দারের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

মুক্তিযোদ্ধা হত্যা মামলায় ৪ আসামি কারাগারে

ঝালকাঠির রাজাপুরে মুক্তিযোদ্ধা শিক্ষক আব্দুস ছালাম খান হত্যা মামলার প্রধান আসামি ওয়ার্ড যুবলীগ সভাপতি ইউপি সদস্য নেতা মোস্তাফিজুর রহমান বাচ্চুসহ চারজনকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। মঙ্গলবার বেলা ১২টায় আসামিরা ঝালকাঠির জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আদালতে আত্মমর্পণ করলে বিচারক রুবাইয়া আমিন তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। একই সঙ্গে আদালত এ মামলায়  সন্দেহভাজন গ্রেফতার ফারুক মুন্সি ও বাদশাহ মোল্লার তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।

আত্মসমর্পণকৃতরা হলেন, রাজাপুর ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ইউপি সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান বাচ্চু, ৬ নম্বর ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি শাহ আলম হাওলাদার, হুমায়ুন কবির ও মান্নান ফরাজী।

গত ১৪ নভেম্বর বিকেলে ওই মুক্তিযোদ্ধাকে রাজাপুরের সাতুরিয়া ইউনিয়নের আমতলা এলাকায় পিটিয়ে আহত করা হলে পরের দিন পিরোজপুরের ভাণ্ডারিয়া উপজেলায় নিজ বাড়িতে তার মৃত্যু হয়। নিহত আব্দুস ছালাম খান ভাণ্ডারিয়ার শিয়ালকাঠি এলাকার বাসিন্দা ও একজন অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক ছিলেন।

এ ঘটনায় নিহতের ছেলে মুরাদ খান বাদী হয়ে চারজন নামধারীসহ আট জনকে আসামি করে হত্যা মামলা করেন।

অপরদিকে, আসামিরা যুবলীগের নেতা হওয়ায় আতঙ্কের মধ্যে রয়েছে বাদী ও সাক্ষীদের পরিবারের সদস্যরা। মামলার ১নং সাক্ষী নারী শিক্ষিকা মরিয়ম আক্তার মুক্তা মামলার পর থেকেই আসামিদের হুমকিতে আত্মগোপনে রয়েছেন। ইউনিয়ন চেয়ারম্যান সিদ্দিকুর রহমানের ছোট ভাই আওয়ামী লীগ নেতা ঠান্ডু তাকে এ ঘটনায় সাক্ষী দিলে মেরে ফেলবেন বলে অকথ্য ভাষায় গালাগাল করেন বলেও মুঠোফোনে অভিযোগ করেন শিক্ষিকা মুক্তা।

মাঝ নদীতে দুই কার্গোর সঙ্গে লঞ্চের সংঘর্ষ: অল্পের জন্য রক্ষা পেলেন যাত্রীরা

মঙ্গলবার রাত পৌনে ১১টা। মুন্সিগঞ্জে মাঝনদীতে বালুবাহী দুই কার্গোর সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয় বরিশালের উদ্দেশে রওয়ানা হওয়া সুরভী-৯ লঞ্চের। তলা ফেটে লঞ্চে পানি ঢুকতে শুরু করে। ওই অবস্থায়ই ঝুঁকি নিয়ে লঞ্চটি চলতে শুরু করে। পরে যাত্রীদের বাধার মুখে লঞ্চ তীরে ভেড়াতে বাধ্য হয় কর্তৃপক্ষ। ফলে বড় ধরনের দুর্ঘটনার হাত থেকে রক্ষা পান সুরভী-৯ লঞ্চের হাজারেরও বেশি যাত্রী।

এ বিষয়ে বরিশাল বিআইডব্লিউটিএ’র বন্দর কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘সুরভী-৯ ও বালুবাহী দুই কার্গোর মধ্যে সংঘর্ষের খবর পেয়েছি। কিন্তু যেখানে ঘটনা ঘটেছে সেটা আমাদের অধিনস্ত এলাকা নয়। ঢাকা নৌ নিরাপত্তা বিভাগের অধীনে। তাই তারাই এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।’

সুরভী-৯ লঞ্চের যাত্রী বিএনপি’র কেন্দ্রীয় কমিটির বরিশাল বিভাগের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট বিলকিছ আক্তার জাহান শিরিন বলেন, ‘মঙ্গলবার রাতে সদর ঘাট থেকে যাত্রী নিয়ে বরিশালের উদ্দেশে যাত্রা করে সুরভী-৯ লঞ্চটি। ছাড়ার এক ঘণ্টা পরে মুন্সিগঞ্জ এলাকায় দুটি বালু ভর্তি কার্গোর সঙ্গে লঞ্চটির মুখোমুখি সংঘর্ষে আতংক ছড়িয়ে পড়লে দুর্ঘটনার আশঙ্কায় যাত্রীরা এদিক ওদিক ছোটাছুটি এবং চিৎকার শুরু করে। এদিকে কার্গোর সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষে সুরভী-৯ লঞ্চের সামনের অংশের তলা ফেটে ভেতরে পানি প্রবেশের বিষয়টি যাত্রীদের কাছে গোপন রেখে ওই অবস্থায়ই ঝুঁকি নিয়ে চলতে শুরু করে। যাত্রীরা বিষয়টি টের পেয়ে উত্তেজিত হয়ে উঠলে লঞ্চ তীরে ভেড়াতে বাধ্য হন সংশ্লিষ্টরা।’

অ্যাডভোকেট বিলকিছ আক্তার জাহান শিরিন সুরভী-৯ লঞ্চের সত্ত্বাধীকারী রেজিনুল কবির ও লঞ্চ মালিক সমিতির নেতাদের ফোন করে বিষয়টি অবহিত করেন। পরে লঞ্চটি ফতুল্লা এলাকা থেকে খানিকটা দূরে নদীর তীরে থামিয়ে ফেটে যাওয়া অংশের মেরামত কাজ শুরু হয়।

লঞ্চে থাকা সুপারভাইজার মাসদর বলেন, ‘লঞ্চটি মেরামত করা সময়ের ব্যাপার। তাই সুরভী কোম্পানির অপর একটি লঞ্চে সুরভী-৯ লঞ্চের যাত্রীদের তুলে দিয়ে বরিশালে পাঠানো হয়।’