দুপুর ২:৩২, শুক্রবার, ২৩শে জুন, ২০১৭ ইং
/ সম্পাদকীয় / সংশোধন হচ্ছে ভ্যাট আইন
সংশোধন হচ্ছে ভ্যাট আইন
মে ১৩, ২০১৭

নতুন ভ্যাট আইন নিয়ে কঠোর অবস্থান থেকে সরে আসছে অর্থ মন্ত্রণালয় ও জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে এ নিয়ে বৈঠকের আগে ব্যবসায়ীদের দাবিগুলো পর্যালোচনা করে প্রয়োজনে আইন সংশোধনের প্রস্তুতি চলছে।

 

নতুন আইনে সংশোধন এনে একক ভ্যাট হার ১৫ শতাংশ থেকে কমিয়ে ধরা হতে পারে। এ ছাড়া ব্যবসায়ীদের দাবি পুরোপুরি মানা না হলেও ভ্যাটমুক্ত টার্নওভারের পরিমাণ বাড়ানো এবং ৩ শতাংশ হারে টার্নওভার ট্যাক্সের সীমা বাড়াতে যাচ্ছে এনবিআর।

 

 আর নতুন মূল্য সংযোজন কর (ভ্যাট) ও সম্পূরক শুল্ক আইনে এক হাজার ৩৫০টি পণ্যের ওপর থেকে আমদানি পর্যায়ে সম্পূরক শুল্ক উঠে যাওয়ার কথা ছিল। এতে দেশীয় শিল্প ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার আশংকা থেকে আইনটি সংশোধন করে ৬০০ পণ্যে সম্পূরক শুল্ক বহাল রাখার উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে। অর্থ মন্ত্রণালয় সূত্র বলছে, নতুন ভ্যাট আইন আগামী ১ জুলাই থেকে বাস্তবায়ন করা থেকে পিছু হটার কোন সুযোগ নেই। তবে ব্যবসায়ীদের আশংকা ও ভোক্তাদের স্বার্থ বিবেচনা করে তাতে কিছু পরিবর্তন আনা হবে।


 অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত ও এনবিআর চেয়ারম্যান মোঃ নজিবুর রহমান বিভিন্ন সময় এ বিষয়ে ইঙ্গিত দিয়ে বলেছেন, ব্যবসায়ীদের দাবি তারা ইতিবাচক দৃষ্টিতে দেখবেন। এ জন্য প্রস্তুতিও নেওয়া হচ্ছে। পুরো বিষয়টি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনার ভিত্তিতে চূড়ান্ত হবে।

 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চলতি সপ্তাহেই অর্থমন্ত্রী, এনবিআর চেয়ারম্যানসহ বাজেট প্রণয়ন সংশ্লিষ্ট শীর্ষ নির্বাহীদের সঙ্গে বৈঠক করে তা চূড়ান্ত করবেন। তবে অর্থমন্ত্রণালয় ও এনবিআরের বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তাদের ধারণা, শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপে ভ্যাটের একক হার কমিয়ে ১০ ও ১৫ শতাংশের মাঝামাঝি পর্যায়ে স্থির করা হতে পারে। দেশীয় শিল্পের স্বার্থ রক্ষায় ভ্যাট আইন সংশোধনের ইঙ্গিত গত ৩০ এপ্রিল প্রকাশ্যেই দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top