দুপুর ২:০৮, রবিবার, ২০শে আগস্ট, ২০১৭ ইং
/ সম্পাদকীয় / শিশু নির্যাতন রোধে পদক্ষেপ
শিশু নির্যাতন রোধে পদক্ষেপ
ডিসেম্বর ২৬, ২০১৬

 

বয়স বিভাজনের ভিত্তিতে মনে হয় এখন বাংলাদেশে সবচেয়ে নির্যাতিত জনগোষ্ঠী শিশুরা। অথচ সবাই বলেন এবং যা শতভাগ সত্য। শিশুরাই জাতির ভবিষ্যৎ। সোজা কথায় বাঙালি জাতির ভবিষ্যৎ সবচেয়ে নির্যাতিত।

 কেউ যখন একটি শিশুকে খুঁটির সঙ্গে বেঁধে পেটায়, তখন সে জাতির ভবিষ্যৎকে খুঁটির সঙ্গে বেঁধে পেটায়। কেউ যখন একটি শিশুর গায়ে আগুনের ছ্যাঁকা দেয়, সে আসলে জাতির ভবিষ্যতের গায়ে আগুনের ছ্যাঁকা দেয়, যে কোনো শিশুকে ছাদ থেকে ছুঁড়ে ফেলে মারে, সে জাতি ভবিষ্যৎকে ছুঁড়ে ফেলে মারে। যারা কোন শিশুর পায়ুপথে হাওয়া ঢুকিয়ে পেট ফুলিয়ে মেরে অট্টহাসিতে ফেটে পড়ে, তারা জাতির ভবিষ্যতের পায়ু পথে হাওয়া ঢুকিয়ে তার পেট ফুলিয়ে মেরে উল্লাসে মেতে ওঠে।

 এসব মোটেও আবেগের কথা নয়, অংকের মতো নিরাবেগ যোগ বিয়োগের ফল। আজকে শুধু নিজের শিশুর দিকে নয়, সমাজের শিশুদের দিকে তাকাতে হবে। মনে রাখতে হবে, শিশু সবার। আজকে আমরা উন্নত বাংলাদেশে প্রবেশ করছি, না এখনও উন্নয়নশীল আছি তাতে বেশি কিছু আসে যায় না। ইতিহাস বহু জাতির উন্নতি অবনতি বা উত্থান পতনে ভরা। বরং ভাবা দরকার আগামী আঠারো বছর পরের বাংলাদেশ কেমন হবে।

 শিশু নির্যাতনের খবর যেভাবে ও যে পরিমাণ পত্রিকায় আসে, তাতে যে কোন সুস্থ মানুষ আঁতকে ওঠার কথা। মনে হয় দেশজুড়ে শিশু নির্যাতনের হিড়িক পড়েছে। যেভাবে দল বেঁধে শিশু নির্যাতনের খবর পাওয়া যায়, তাতে মনে হয় আমাদের সমাজের একটা অংশ বিকৃত মস্তিষ্ক হয়ে গেছে। এ নির্যাতন এখন আর ব্যক্তিগত পর্যায়ে নেই, সামাজিক ব্যাধির আকার ধারণ করেছে।

 এ রকম মাত্রায় নির্যাতন যে কেবল শিশুর ক্ষেত্রে ঘটছে তা নয়, নারীর ক্ষেত্রেও ঘটছে। বড়দের হাতে শিশুদের নির্যাতনও আসলে অনেক পুরনো ইতিহাস। এখন তা দুঃস্বপ্নে রূপ নিচ্ছে। শিশু নির্যাতন শ্রেণী নিরপেক্ষ কোনো সমস্যা নয়। তবে সংকটটি যদি এভাবে বিস্তার লাভ করতে থাকে তবে অন্য শ্রেণীর শিশুরাও সহজে রেহাই পাবে না।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top