সন্ধ্যা ৭:১২, বুধবার, ২২শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ইং
/ অর্থ-বাণিজ্য / লন্ডনে অর্থমন্ত্রী মুহিতকে সংবর্ধনা
লন্ডনে অর্থমন্ত্রী মুহিতকে সংবর্ধনা
February 13th, 2017

করতোয়া ডেস্ক : লন্ডনে সংবর্ধিত হলেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। রোববার যুক্তরাজ্েেযর পূর্ব লন্ডনের ইমপ্রেশন ইভেন্ট ভেন্যুচতে নাগরিক এই সংবর্ধনার আয়োজন করে যুক্তরাজ্য্ আওয়াসী লীগ।

অনুষ্ঠানে প্রবাসী সাংবাদিক আবদুল গাফফার চৌধুরী, মুক্তিযুদ্ধবিষয়কমন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক, মুহিতের ভাই জাতিসংঘে বাংলাদেশের সাবেক স্থায়ী প্রতিনিধি এ কে এ মোমেন বক্তব্যে রাখেন। আবদুল গাফফার চৌধুরী বলেন, মুহিত ভাইকে অর্থমন্ত্রী হিসেবে সংবর্ধনা জানালে ছোট করা হয়। অর্থমন্ত্রী তো আসে যায়। কিন্তু মুহিত ভাই একজন সংস্কৃতিমনস্ক, রাজনীতিমনস্ক ব্যিক্ত। একজন মানুষ মুহিত হিসেবে তাকে সংবর্ধনা দিচ্ছেন আপনারা। একুশের গানের রচয়িতা গাফফার চৌধুরী ভাষা আন্দোলনের সময় মুহিতের সঙ্গে কারাগারে যাওয়ার স্মৃতিচারণ করেন। সেইসঙ্গে রসিকতার সুরে অর্থমন্ত্রীর ‘রাবিশ’ বলার কথাও বলেন তিনি। ভাষা আন্দোলনে আমরা এক সঙ্গে জেলে ছিলাম। মুহিত ভাইয়ের রাবিশ বলার স্বভাব। এখনও রাবিশ বলা তার ব্যক্তিত্বের বৈশিষ্ট্য। বিশ্বমন্দার মধ্যো বাংলাদেশকে রক্ষা করার কৃতিত্ব মুহিতকেই দেন প্রবাসী এই লেখক-সাংবাদিক।

কৃষিভিত্তিক দেশ থেকে বাংলাদেশকে শিল্পায়নের দিকে এগিয়ে নিতে শেখ হাসিনার সঙ্গে ‘বড় ভাই’ মুহিতের কৃতিত্বের কথাও বলেন তিনি। অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত মুহিত বাংলাদেশের উন্নয়নের লক্ষ্যে  বর্তমান সরকারের নেওয়া বিভিন্ন পদক্ষেপ তুলে ধরেন প্রবাসীদের কাছে। আওয়ামী লীগকে ‘গরিবের দল’ অভিহিত করে এই দলটির উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য মুহিত বলেন, জনগণের কল্যা ণই এই দলটির প্রধান লক্ষ্য। সিলেটের বাসিন্দা মুহিত দেশে প্রবাসীদের বিনিয়োগ প্রত্যাশা করে তার অনুকূল অবস্থা তৈরিতে সরকারের নানামুখী পদক্ষেপও তুলে ধরেন। তিনি বলেন, আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী একটা বিষয়ে আপসহীন, সেটা হল বিদ্যু ৎ দিতে হবে এবং বিদ্যু ৎ সস্তায় দিতে হবে। এখন বিদ্যুাৎ পাবেন। যুক্তরাজি আওয়ামী লীগ আখেরুজ্জামান েেচৗধুরী, শাসসুদ্দিন খান, সুলতান মাহমুদ শরিফ, সৈয়দ সাহিদুর রহমান ফারুক বক্তব্য রাখেন।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :