বিকাল ৪:৪০, বুধবার, ২৮শে জুন, ২০১৭ ইং
/ চট্টগ্রাম / রাতের অন্ধকারে পোড়া মবিল ছিটিয়ে চট্টগ্রামে বৈশাখী দেয়ালচিত্র নষ্ট
রাতের অন্ধকারে পোড়া মবিল ছিটিয়ে চট্টগ্রামে বৈশাখী দেয়ালচিত্র নষ্ট
এপ্রিল ১২, ২০১৭

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি: বর্ষবরণের প্রস্তুতির মধ্যে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা ইনস্টিটিউটের শিক্ষার্থীদের আঁকা দেয়ালচিত্র নষ্ট করা হয়েছে ‘পোড়া মবিল’ ছিটিয়ে।
মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১২টা পর্যন্ত চট্টেশ্বরী রোডে চারুকলা ইনস্টিটিউটের মূল গেইটের বিপরীত পাশের দেয়ালে আঁকার কাজ করেছিলেন শিক্ষার্থীরা। এরপর আধা ঘণ্টা পর দুটি মোটর সাইকেলে চার যুবক এসে দেয়ালচিত্রটি নষ্ট করে দিয়ে যায় বলে প্রত্যক্ষদর্শীকে উদ্ধৃত করে চকবাজার থানার ওসি নুরুল হুদা জানিয়েছেন। বৈশাখের অনুষ্ঠান ‘অনৈসলামিক’ দাবি করে ইসলামী বিভিন্ন সংগঠন তা বন্ধের দাবি জানিয়ে আসছে। কিন্তু চট্টগ্রামের এই দেয়ালচিত্র কারা নষ্ট করেছে, তা জানা যায়নি।

ওসি নুরুল হুদা বলেন, রাত ১টার পর দুটি মোটর সাইকেলে করে চারজন যুবক এসে দেয়ালে কিছু লাগিয়ে দিয়ে চলে যায়। দেখে মনে হচ্ছে, পোড়া মোবিল লেপ্টে দিয়ে দেয়ালচিত্র নষ্ট করতে চেয়েছে তারা। চারুকলা ইনস্টিটিউটের সহকারী অধ্যাপক জিহান করিম বলেন, প্রতিবছরের মতো এবছরও ইনস্টিটিউটের মাস্টার্সের শিক্ষার্থীদের তত্ত্বাবধানে অন্যান্য শিক্ষার্থীরা দেয়ালচিত্র অঙ্কনসহ শোভাযাত্রার বিভিন্ন কাজ করছেন। গত রাতে প্রায় রাত ১২টা পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা দেয়াল চিত্র অঙ্কন করেছিল। তারা কাজ শেষ করে ইনস্টিটিউটে প্রবেশ করার পর এ ঘটনা ঘটেছে। রাতে নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা আনসার সদস্য মো. তফছির জানান, কাজ শেষ করে শিক্ষার্থীরা ক্যম্পাসে ঢোকার পর কয়েকটি মোটর সাইকেলের শব্দ শোনা যায়। তারা ইনস্টিটিউট গেইটে থেমে চিৎকার ও গালিগালাজ করে কালো তরল জাতীয় কিছু একটা লেপ্টে দেয়। এসময় ক্যাম্পাসের ভেতরে কয়েকজন শিক্ষার্থী ছিলেন।

তারা জানান, গোলপাহাড়ের দিক থেকে আসা মোটর সাইকেলগুলো চট্টেশ্বরী সড়কের দিকে চলে যায়।কয়েক বছর আগে নগরীর ডিসি হিলে জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের মুরালের মুখে কালো রঙ লেপ্টে দেওয়ার ঘটনা ঘটেছিল। ইনস্টিটিউটের সহযোগী অধ্যাপক জাহেদ আলী চৌধুরী যুবরাজ বলেন, যারা বাঙালি সংস্কৃতিকে প্রতিপক্ষ মনে করেন, তারাই এ ধরনের ঘটনা ঘটিয়েছে। নগর পুলিশের উপ-কমিশনার (দক্ষিণ) এসএম মোস্তাইন হোসাইন বলেন, স্থানীয় কোন্দল বা এধরনের কাজকে পছন্দ করে না, এমন কেউ এ ধরনের ঘটনা ঘটিয়েছে কি না, তা তদন্ত করা হচ্ছে। ঘটনাস্থলের আশেপাশের বিভিন্ন সিসি ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহ করা হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, যেহেতু নববর্ষের আগে এ ধরনের ঘটনা ঘটেছে তাই বিষয়টি আমরা বিশেষভাবে নজর দিচ্ছি।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top