রাত ৩:৫৫, শনিবার, ২৮শে এপ্রিল, ২০১৭ ইং
/ দেশজুড়ে / যশোরে মানবাধিকার কর্মী বিনয় কৃষ্ণ মল্লিক আটক
যশোরে মানবাধিকার কর্মী বিনয় কৃষ্ণ মল্লিক আটক
মার্চ ১৪, ২০১৭

যশোর প্রতিনিধি : মানবাধিকার সংস্থা রাইটস যশোরের নির্বাহী পরিচালক বিনয়কৃষ্ণ মল্লিককে আটক করেছে পুলিশ। গত সোমবার সন্ধ্যায় শহরের বাসা থেকে তাকে আটক করা হয়।

যশোর কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইলিয়াস হোসেন বলেন, নরসিংদী জেলার একটি প্রতরণার নিয়মিত মামলায় তাকে আটক করা হয়।
এর আগে, সোমবার দুপুরে বিনয় কৃষ্ণ মল্লিক প্রেসক্লাব যশোরে সংবাদ সম্মেলন করে অভিযোগ করে বলেছিলেন, ক্ষমতার অপব্যহার করে যশোরের পুলিশ সুপার আমার বড় ধরণের ক্ষতি করতে পারেন।

আটক বিনয় কৃষ্ণ মল্লিকের ছেলে শ্যামল মল্লিক বলেন, দুপুরে তাঁর বাবা যখন প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে যায়  সেই থেকেই সাদা পোশাকে চারজন পুলিশ সদস্য ঘোপ জেল রোডস্থ রাইটস যশোরের কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নিয়েছিলেন। পরে সন্ধ্যায় বাড়িতে অভিযানে তারাও অংশ নেয়। তিনি দাবি করেন, সংবাদ সম্মেলনের প্রতিক্রিয়ায় এসপির নির্দেশে বাবাকে আটক করেছে পুলিশ।

তবে এ সকল অভিযোগ অস্বীকার করে পুলিশ সুপার (এসপি) আনিসুর রহমান দাবি করেন, তাকে হয়রানির জন্য এসব ভিত্তিহীন অভিযোগ করা হচ্ছে। এছাড়াও আটকের ব্যাপারে পুলিশের দাবি, নরসিংদী জেলার পুলিশ তাকে আটক করেছে। যশোরের পুলিশ শুধুমাত্র তাদেরকে সহযোগিতা করেছে। তাকে আটকের ব্যাপারে যশোর জেলা পুলিশের কোত হাত নেই।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বিনয় কৃষ্ণ বলেছিলেন, ‘যশোর শহরের গাড়িখানায় রাতের অন্ধকারে শত বছর ধরে ভোগদখলে থাকা ২৪ ঘরের বাসিন্দাদের পুলিশ বিনা নোটিশে তাড়িয়ে দেয়। পরে সেখানে গড়ে তোলা হয়েছে পুলিশ ক্লাব। আমি এর প্রতিবাদ করায় আমার বিরুদ্ধে যশোরের পুলিশ সুপার একের পর এক ষড়যন্ত্র করে আসছে। এর আগে আমার বিরুদ্ধে বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি দফতরে আপত্তিকর আবেদন করা হয়েছে। এছাড়া আমার ছেলে সবুজ মল্লিকের নামে একটি মিথ্যা মামলাও দেওয়া হয়েছিল। সর্বশেষ গত ৯ মার্চ শহরের গাড়িখানা এলাকা থেকে সবুজকে একদল সাদা পোষাকধারী লোক তুলে নিয়ে যায়। পথিমধ্যে মাইক্রোবাসে ফেনসিডিল তুলে নেওয়া হয়। পরে সেই ফেনসিডিলসহ খুলনা ফুলতলা টহল পুলিশ তাকে আটক দেখায়।’



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top