রাত ২:৪৯, শনিবার, ২১শে জুলাই, ২০১৭ ইং
/ আর্ন্তাজাতিক / মে মাসেই তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ!
মে মাসেই তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ!
এপ্রিল ২০, ২০১৭

করতোয়া ডেস্ক: ধ্বংস হবে পৃথিবী! এই নিয়ে বিশ্বজুড়ে শুরু হলো তোলপাড়। তোলপাড়ের কারণ হচ্ছে হরেসিও ভিলেগাসের ভবিষ্যৎবাণী। ভীতিকর এই ভবিষ্যৎবাণীতে তিনি বলেছেন, মে ও অক্টোবরের মধ্যেই তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ শুরু হবে। আর এই বিশ্বযুদ্ধের কারণে অক্টোবরের শেষের দিকে ধ্বংস হবে পৃথিবী ।এ পর্যন্ত তার করা সবগুলো ভবিষ্যৎবাণীই সত্যি হয়েছে।

 

 

তিনি ২০১৫ সালে বলেছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হবেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। বর্তমানে এর বাস্তবতা আমাদের চোখের সামনে। তিনি ভবিষ্যৎবাণী করেছিলেন একজন ধনাঢ্য ব্যবসায়ী ‘ইলিউমিনেটি রাজা’ হবেন যার কারণে বিশ্বে তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধের সৃষ্টি হবে। আর ২০১৭ সালের মে মাসে পৃথিবী ধ্বংসের ভবিষ্যৎবাণীতে ধারণা করা হচ্ছে ট্রাম্পই হচ্ছে ভবিষ্যৎবাণীর ‘ইলিউমিনেটি রাজা’।


হরেসিও ভিলেগাস ব্রিটেনের সংবাদমাধ্যম ডেইলি স্টারকে বলেছিলেন, তিনি বিশ্বাস করেন লেডি অব ফাতেমার শততম বার্ষিকী উদযাপনে পরমাণু যুদ্ধ সংগঠিত হতে পারে। দাবি করা হয় যে, লেডি অব ফাতেমা যাকে মাদার অব যিশু (কুমারী মেরি) বলে অভিহিত করা হয় তিনি ৬ টি ভিন্ন উপলক্ষ্য নিয়ে পর্তুগাল সফর করেছিলেন। এর মধ্যে ১৯১৭ সালে শেষ সফরটি সম্পন্ন হয়।

 

আর এ কারণেই ভিলেগাস বিশ্বাস করেন লেডি ফাতেমার শেষ সফরের শতবছর পূর্তি উপলক্ষ্যে ১৩ মে তে তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ সংগঠিত হবে। কারণ প্রথম বিশ্বযুদ্ধ শুরু হওয়ার পর লেডি ফাতেমা যুদ্ধ শেষ হওয়ার সময়কাল বলে দিয়েছিলেন। একই সঙ্গে তিনি বলেছিলেন, সৈন্যরা শীঘ্রই তাদের ঘরে ফিরে যাবে। তার ভবিষ্যৎবাণী বাস্তবতায় রূপ নিয়েছিল। পরের বছরেই প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সমাপ্তি ঘটে।

 

 ভিলেগাস ডেইলি স্টারকে আরোও বলেছিলেন, এতোকিছুর মধ্যে প্রধান বার্তা হলো ২০১৭ সালের ১৩ মে-১৩ অক্টোবরের মধ্যেই তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ সংগঠিত হওয়ার ব্যাপারে জনগণকে সতর্ক করতে হবে। এই যুদ্ধ বিশাল ধ্বংসযজ্ঞের সৃষ্টি করবে যা ব্যাপক মৃত্যুর কারণ হবে। অপরদিকে বুলগেরিয়ায় জন্ম নেওয়া বাবা ভাংগা ‘বালকানস থেকে নোস্ট্রাডামাস’ নামে পরিচিত। তিনি ১৯৯৬ সালে ৮৫ বছর বয়সে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। তার সফলতায় ৮৫ শতাংশ কৃতিত্বের কারণে ভবিষ্যৎবাণী করেছিলেন যে ৩৭৯৭ সালে পৃথিবী ধ্বংস হবে।


 অন্ধ নারী তার পঞ্চাশ বছরের কর্মজীবনে রহস্যময়ভাবে ৯/১১, ২০০৪ বক্সিং দিবস সুনামি, ফুকুশিমার পারমাণবিক দূর্ঘটনা, আইএস এর জন্মসহ শত শত ভবিষ্যৎবাণী করেছিলেন। যার সবগুলোই সত্য হয়েছে। তার অন্যান্য চিত্তাকর্ষক ভবিষ্যৎবাণীগুলোর মধ্যে রয়েছে ২০১০ সালে মুসলিম চরমপন্থীদের দ্বারা ইউরোপের আক্রমণ। ২০১০ সালে আরব বসন্তের মাধ্যমে একটি সংঘর্ষের কথা বলেছিলেন তিনি। যেখানে বলা হয়েছিল সিরিয়ায় মুসলিমরা ইউরোপীয়দের বিরুদ্ধে রাসায়নিক যুদ্ধ সংগঠিত করবে।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top