রাত ২:৩৫, শুক্রবার, ২০শে জুলাই, ২০১৭ ইং
/ রাজশাহী / মেয়র মিরুর শটগানের গুলিতেই মারা গেছেন সাংবাদিক শিমুল
মেয়র মিরুর শটগানের গুলিতেই মারা গেছেন সাংবাদিক শিমুল
মার্চ ২০, ২০১৭

সিরাজগঞ্জ ও শাহজাদপুর প্রতিনিধি : সিআইডি’র ব্যালাস্টিক পরীক্ষায় সাংবাদিক আব্দুল হাকিম শিমুলের মাথায় বিদ্ধ গুলির সঙ্গে সিরাজগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের বহিস্কৃত সাংগঠনিক সম্পাদক শাহজাদপুর পৌর মেয়র হালিমুল হক মিরুর শটগানের গুলির মিল পেয়েছে সিআইডি। গত রোববার রাতে চাঞ্চল্যকর সাংবাদিক শিমুল হত্যা মামলার (জিআর-৪১১৭) রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী এডভোকেট আবুল কাশেম মিয়া এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি রিপোর্টের বরাত দিয়ে জানান, সাংবাদিক শিমুলের মরদেহের ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক দল তার মাথার ভেতর থেকে একটি গুলি (০.০৫ গ্রাম ওজনের সিসার বল) উদ্ধার করেন। গুলিটি মেয়র মিরুর শটগানের কী না তা নিশ্চিত হতে শাহজাদপুর থানা পুলিশ গত ৮ ফেব্র“য়ারি ঢাকার সিআইডিতে ব্যালাস্টিক পরীক্ষার জন্য পাঠান। ঢাকাস্থ সিআইডি’র ব্যালাস্টিক পরীক্ষা বিভাগ এ সংক্রান্ত একটি রিপোর্ট শাহজাদপুর আমলি আদালতে জমা দিয়েছেন।

ওই রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছে, মেয়র মিরুর শটগানের গুলির সঙ্গে সাংবাদিক শিমুলের ময়নাতদন্তে পাওয়া গুলির স্লিন্টারটির (সিসার বল) মিল পাওয়া গেছে।
এ মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা শাহজাদপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মনিরুল ইসলাম জানান, বিষয়টি মৌখিকভাবে জেনেছি। তবে ব্যালাস্টিক রিপোর্টটি এখনও পায়নি। তাই পুরোপুরি নিশ্চিত না হয়ে এ ব্যাপারে তিনি মন্তব্য করতে অপারগতা প্রকাশ করেন।’

গত ৮ ফেব্র“য়ারি এ মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মনিরুল ইসলাম শাহজাদপুর আমলি আদালতের মাধ্যমে পৌর মেয়র মিরুর কাছ থেকে জব্দ করা তার লাইসেন্সকৃত বারো বোরের একটি শটগান, ওই শটগানের ৪টি গুলি, ময়নাতদন্তে নিহত সাংবাদিক শিমুলের মাথার ভেতর থেকে পাওয়া একটি স্লিন্টার (সিসার বল) ও একটি গুলির খোসা ঢাকার সিআইডিতে ব্যালাস্টিক পরীক্ষার জন্য পাঠান।

উল্লেখ্য, গত ২ ফেব্র“য়ারি সকালে ছাত্রলীগ ও মেয়র গ্র“পের সংঘর্ষের সময় দায়িত্বপালনকালে মেয়র হালিমুল হক মীরুর ব্যক্তিগত শটগানের গুলিতে সাংবাদিক শিমুল গুলিবিদ্ধ হন। আশঙ্কাজনক অবস্থায় প্রথমে বগুড়া ও পরে ঢাকা নেয়ার পথে শিমুল মারা যায়।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top