দুপুর ২:৩৮, বুধবার, ২৬শে জুলাই, ২০১৭ ইং
/ দেশজুড়ে / মুফতি হান্নানের কবর খোঁড়ার কাজ সম্পন্ন
কোটালীপাড়ায় লাশ দাফনে ঘোর আপত্তি
মুফতি হান্নানের কবর খোঁড়ার কাজ সম্পন্ন
এপ্রিল ১২, ২০১৭

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি : নিষিদ্ধ ঘোষিত হরকাতুল জিহাদের (হুজি) শীর্ষনেতা মুফতি আব্দুল হান্নান মুন্সীর ফাঁসির রায় কার্যকর হবার পর তার লাশ গ্রামের বাড়ি গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া উপজেলার হিরন গ্রামে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে বলে পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে। পারিবারিক কবরস্থানে ইতিমধ্যে হান্নান মুন্সীর জন্য কবর খনন করা হয়েছে। তবে মুফতি হান্নানের লাশ দাফন নিয়ে তার নিজ এলাকায় নানা প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। মুক্তিযোদ্ধা, সাধারণ গ্রামবাসী ও আওয়ামী রাজনৈতিক নেতা-কর্মীরা তার লাশ কোটালীপাড়ায় দাফনের ঘোর আপত্তি জানিয়েছেন। এখানে যাতে এই শীর্ষ জঙ্গি নেতার লাশ দাফন না হয় তার জন্য ইতিপূর্বে কোটালীপাড়ায় বিক্ষোভ মিছিল, মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে উপজেলা ছাত্রলীগ। এমনকি তার নিজ হিরন গ্রামবাসী এ গ্রামে যাতে লাশ দাফন না হতে পারে তার জন্য কর্মসূচি পালন করেছে।

এদিকে কারা কর্তৃপক্ষের চিঠি অনুযায়ী মুফতি হান্নানের পরিবারের চার সদস্য  বুধবার সকালে মুফতি হান্নানের সাথে কাশিমপুর কারাগারে দেখা করেছেন। তারা হলেন- বড় ভাই আলিউজ্জামান মুন্সী, স্ত্রী রুমা বেগম এবং বড় মেয়ে নিশি খানম, নাজরিন খানম ।

উল্লে¬খ্য, ২০০৪ সালের ২১ মে সিলেটের হযরত শাহজালাল (র.) মাজারে তৎকালীন ব্রিটিশ হাইকমিশনার আনোয়ার চৌধুরীর ওপর গ্রেনেড হামলা হয়। হামলায় আনোয়ার চৌধুরী, সিলেটের জেলা প্রশাসকসহ অর্ধশতাধিক ব্যক্তি আহত এবং নিহত হন দুই পুলিশ কর্মকর্তাসহ তিনজন। মামলার বিচার শেষে ২০০৮ সালের ২৩ ডিসেম্বর বিচারিক আদালত সিলেটের দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল ৫ আসামির মধ্যে মুফতি হান্নান, বিপুল ও রিপনকে মৃত্যুদণ্ড এবং মহিবুল্ল¬াহ ও আবু জান্দালকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেন।

 



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top