বিকাল ৩:১১, রবিবার, ২৬শে মার্চ, ২০১৭ ইং
/ সম্পাদকীয় / মাদকের সর্বনাশা থাবা
মাদকের সর্বনাশা থাবা
মার্চ ১৮, ২০১৭

দেশজুড়ে মাদকের ভয়ঙ্কর নেটওয়ার্ক গড়ে উঠেছে। অবৈধ অস্ত্র, অর্থ আর রাজনৈতিক প্রভাবে অপ্রতিরোধ্য হয়ে উঠেছে এই মাদক মাফিয়ারা। দেশের ৩২ জেলার সীমান্তবর্তী এলাকাগুলো শাসন করছে এখন তারাই। এসব সীমান্ত এলাকার ৫১ পয়েন্ট দিয়েই পাচার করে আনছে হাজার কোটি টাকার বিভিন্ন ধরনের মাদকদ্রব্য। সিন্ডিকেটের ছড়িয়ে থাকা শক্তিশালী জালের মাধ্যমে সহজেই তা ছড়িয়ে পড়ছে সারা দেশে।

 গত বুধবার ফেনীর ফুলগাজী উপজেলার মুন্সিরহাট ইউনিয়নের ভারত সীমান্ত সংলগ্ন বদরপুর এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালতে হামলা চালিয়েছে মাদক ব্যবসায়ীরা। এতে একজন আনসার সদস্য নিহত এবং ম্যাজিস্ট্রেটসহ দু’জন আহত হয়েছেন। মাদক ব্যবসায়ীরা আনসার সদস্যের অস্ত্রটিও লুটে নিয়ে যায়। মাদক ব্যবসায়ীরা এখন অত্যাধুনিক সব অস্ত্র রাখছে।

 এ ছাড়া আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর অভিযানে মাদক ব্যবসার সঙ্গে জড়িত মাঠ পর্যায়ের লোকজন ধরা পড়লেও মূল হোতারা সব সময় রয়ে যায় ধরা ছোঁয়ার বাইরে। যারা ধরা পড়ছে, তারাও আবার আইনের ফাঁক ফোকর গলিয়ে দ্রুত বেরিয়ে যাচ্ছেন। আসল নাটের গুরুরা ধরা পড়লে এদের মুখোশ যেমন উন্মোচিত হতো, তেমনি মাদক ব্যবসায়ও ভাটা পড়ত।

 এখনো মাদককে ফেরাতে না পারলে এ বিষ সমাজের রন্ধ্রে রন্ধ্রে ঢুকে পড়বে। তখন করার কিছুই থাকবে না। সামাজিক জবাবদিহিতার জায়গাগুলো স্পষ্ট করা দরকার। সীমান্ত এলাকা দিয়ে মাদক কীভাবে দেশের অভ্যন্তরে ঢোকে, সে ব্যাপারে জবাবদিহিতা নিশ্চিত করা জরুরি। একটি জাতি ও রাষ্ট্রকে সর্বনাশের উন্মত্ততা থেকে রক্ষার সব রকম প্রয়াস নিতে হবে নির্মোহ ও কঠোর হাতে।

 



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top