সন্ধ্যা ৬:০৭, রবিবার, ২২শে জানুয়ারি, ২০১৭ ইং
/ শিক্ষা / পূর্ণ জিপিএ দুই লাখ ৪৭ হাজার ৫৮৮ জন
জেএসসি-জেডিসির ফল প্রকাশ, পাশের হার ৯৩.০৬
পূর্ণ জিপিএ দুই লাখ ৪৭ হাজার ৫৮৮ জন
December 29th, 2016

চলতি বছরের জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষায় পাসের হার ৯৩.০৬ শতাংশ। জেএসসিতে জিপিএ ফাইভ ২ লাখ ৩৫ হাজার ৫৯ জন, জেডিসিতে পাসের হার ৯৪.০২ শতাংশ, জিপিএ ফাইভ ১২ হাজার ৫২৯ জন; পিইসিতে পাসের হার ৯৮.৫১ শতাংশ, ইবতেদায়ীতে পাসের হার ৯৫.৮৫ শতাংশ, জিপিএ-পাঁচ ৫ হাজার ৯৪৮।  বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে এ পরীক্ষার ফলাফলের অনুলিপি তুলে দেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। একই সময়ে প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষার ফলাফলের অনুলিপি তুলে ধরেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান।

মোট জিপিএ ফাইভ পেয়েছে ২ লাখ ৪৭ হাজার ৫৮৮ জন শিক্ষার্থীÑএ সময় শিক্ষামন্ত্রী ফলাফলের আংশিক তথ্য তুলে ধরেন।তিনি বলেন, এবার দুই পরীক্ষায় মোট পরীক্ষার্থী ছিল ২৩ লাখ ৪৬ হাজার ৯৫৯ জন। এরমধ্যে পাস করেছে ২১ লাখ ৮৩ হাজার ৯৭৫ জন। এবারে ৯ হাজার ৪৫০টি প্রতিষ্ঠান থেকে সব শিক্ষার্থী পাস করেছে। গতবারের চেয়ে এবার ৮৬৭টি প্রতিষ্ঠানে শতভাগ শিক্ষার্থী পাস করেছে। অন্যদিকে শূন্য পাস করা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ২৮। গতবার এই সংখ্যাটি ছিল ৪৩।শিক্ষামন্ত্রী আরো বলেন, শুধু আট বোর্ডের অধীন জেএসসি পরীক্ষায় পাসের হার ৯২.৮৯ শতাংশ। এই পরীক্ষায় জিপিএ ফাইভ পেয়েছে ২ লাখ ৩৫ হাজার ৫৯ জন পরীক্ষার্থী। মোট পরীক্ষার্থী ছিল ১৯ লাখ ৯৩ হাজার ৬১৯ জন। এরমধ্যে পাস করেছে ১৮ লাখ ৫১ হাজার ৪৯৬ জন।

এবার জেএসসি পরীক্ষায় বিদেশের আটটি কেন্দ্রে ৬২৬ জন পরীক্ষা দিয়েছিল এরমধ্যে পাস করেছে ৬২৩ জন শিক্ষার্থী অর্থাৎ বিদেশের কেন্দ্রে পাসের হার ৯৯.৫২।প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে এ ফল হস্তান্তরের পর দুপুর ১২টার দিকে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে ফলাফলের বিস্তারিত তুলে ধরেন শিক্ষামন্ত্রী। এরপর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলোতে এবং ওয়েবসাইটেও ফলাফল প্রকাশ করা হবে।অষ্টম শ্রেণির জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট পরীক্ষায় এবার পাস করেছে ৯৩ দশমিক ০৬ শতাংশ শিক্ষার্থী, জিপিএ-৫ পাওয়া শিক্ষার্থীর সংখ্যায় ঘটেছে বড় উল্লম্ফন। জেএসসি-জেডিসি মিলিয়ে এ বছর মোট ২ লাখ ৪৭ হাজার ৫৮৮ জন পূর্ণ জিপিএ পেয়েছে; গতবছর এই সংখ্যা ছিল ১ লাখ ৯৬ হাজার ২৬৩ জন। গতবছর এ পরীক্ষায় ৯২ দশমিক ৩৩ শতাংশ শিক্ষার্থী পাস করেছিল। এই হিসাবে এবার পাসের হার শূন্য দশমিক ৭৩ শতাংশ পয়েন্ট বেড়েছে।

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বৃহস্পতিবার গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে পরীক্ষার ফলের অনুলিপি তুলে দেন। শিক্ষা বোর্ডগুলোর চেয়ারম্যানরাও তার সঙ্গে ছিলেন।দুপুরে সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে এবারের জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষার বিভিন্ন দিক তুলে ধরার কথা রয়েছে শিক্ষামন্ত্রীর।এ বছর সারা দেশে ২৩ লাখ ৪৬ হাজার ৯৫৯ জন শিক্ষার্থী জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষায় অংশ নেয়। তাদের মধ্যে ২১ লাখ ৮৩ হাজার ৯৭৫ জন পাস করেছে বলে জানিয়েছেন মন্ত্রী।৯ হাজার ৪৫০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শতভাগ শিক্ষার্থী পাস করেছে।গত ১ থেকে ১৭ নভেম্বর পর্যন্ত জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা হওয়ার কথা থাকলেও দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে ৬ নভেম্বরের জেএসসির বরিশাল, চট্টগ্রাম ও কুমিল্লা বোর্ড এবং জেডিসির সারা দেশের পরীক্ষা স্থগিত করা হয়। জেএসসির স্থগিত পরীক্ষা ১২ নভেম্বর এবং জেডিসির পরীক্ষা হয় ১৯ নভেম্বর নেওয়া হয়।

২০১৫ সালে এ পরীক্ষায় আটটি সাধারণ বোর্ডের অধীনে জেএসসিতে ৯২ দশমিক ৩১ শতাংশ এবং মাদ্রাসা বোর্ডের অধীনে জেডিসিতে ৯২ দশমিক ৪৬ শতাংশ শিক্ষার্থী পাস করেছিল।ফল জানা যাবে মোবাইলে: যে কোনো মোবাইল থেকে ঔঝঈ/ঔউঈ লিখে স্পেস দিয়ে নিজ বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর লিখে স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে ২০১৬ লিখে ১৬২২২ নম্বরে এসএমএস করলে ফিরতি এসএমএসে জেএসসি/জেডিসির ফল জানিয়ে দেওয়া হবে।এছাড়া শিক্ষাবোর্ডগুলোর ওয়েবসাইট এবং সংশ্লিষ্ট শিক্ষা বোর্ডের ওয়েবসাইট থেকেও জেএসসি-জেডিসির ফল জানা যাবে।সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে ই-মেইলেও জেএসসি-জেডিসির ফলাফলের সফটকপি পাঠাবে সংশ্লিষ্ট শিক্ষা বোর্ড। প্রয়োজনে এদের কাছ থেকেও ফলাফলের কপি সংগ্রহ করা যাবে বলে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব-কমিটি জানিয়েছে।সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে ই-মেইলেও জেএসসি-জেডিসির ফলাফলের সফটকপি পাঠাবে সংশ্লিষ্ট শিক্ষা বোর্ড। প্রয়োজনে এদের কাছ থেকেও ফলাফলের কপি সংগ্রহ করা যাবে বলে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব-কমিটি জানিয়েছে।

বিদেশের ৮ কেন্দ্রে পাস ৯৯.৫২%
জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) পরীক্ষায় বিদেশের আটটি কেন্দ্রের ৯৯ দশমিক ৫২ শতাংশ শিক্ষার্থী পাস করেছে, জিপিএ-৫ পেয়েছে ৮৪ জন। গত বছর বিদেশের কেন্দ্র থেকে ৯৮ দশমিক ২১ শতাংশ শিক্ষার্থী পাস করেছিল। সেই হিসাবে এবার বিদেশ কেন্দ্রে পাসের হার বেড়েছে ১ দশমিক ৩১ শতাংশ পয়েন্ট। শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষার ফলাফলের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন। এবার দেশের বাইরের আটটি কেন্দ্রে ৬২৬ জন শিক্ষার্থী জেএসসিতে অংশ নেয়। তাদের মধ্যে পাস করেছে ৬২৩ জন। ছয়টি কেন্দ্রের শতভাগ শিক্ষার্থী পাস করেছে। জেএসসি-জেডিসিতে এবার সম্মিলিতভাবে ৯৩ দশমিক ০৬ শতাংশ শিক্ষার্থী পাস করেছে, এদের মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে দুই লাখ ৪৭ হাজার ৫৮৮ জন।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :