রাত ১১:১৯, বুধবার, ১৬ই আগস্ট, ২০১৭ ইং
/ দেশজুড়ে / পার্বতীপুরে প্রতারক মনির রিমান্ড শেষে জেলহাজতে
পার্বতীপুরে প্রতারক মনির রিমান্ড শেষে জেলহাজতে
মার্চ ১৮, ২০১৭

পার্বতীপুর (দিনাজপুর) প্রতিনিধি : দিনাজপুরের পার্বতীপুরে ১৮ লাখ টাকা আত্মসাতের ঘটনায় গ্র্রেফতারকৃত প্রতারক মনিরকে দুই দিনের রিমান্ডে শেষে  শনিবার আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই শাহিন জানান, রিমান্ডে থাকাকালে সে পুলিশকে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছে। তার দেয়া তথ্যসমূহ এখন যাচাইবাছাই করা হচ্ছে। তবে তদন্তের স্বার্থে তা প্রকাশ করা যাচ্ছে না।

উলে¬øখ্য, উপজেলার পূর্ব শেরপুর গ্রামের বাসিন্দা সোহরাব আলীর পুত্র নিসা ফিলিং স্টেশন ও নিসা এন্টারপ্রাইজের স্বত্বাধিকারী শফিকুল ইসলাম তার পাম্পের ম্যানেজার হিসেবে পার্শ্ববর্তী শেরপুর তেলিপাড়া লুৎফর রহমানের পুত্র মনিরুজ্জামান মনির ওরফে জামানকে চাকরি দেয়। শফিকুল বিভিন্ন কাজের জন্য প্রায় সময় বাইরে অবস্থান করেন। এ সুযোগে ম্যানেজার মনির আত্মসাতের কৌশল অবলম্বন করে। এর মধ্যে ঠিকাদারী কাজের জন্য ১৮টি পে-অর্ডার বাবদ সাড়ে ১৪ লাখ টাকা, পিআইও অফিসের টেন্ডারের সাড়ে ৯ হাজার টাকা, প্রতিষ্ঠানের ভাউচার জাল করে অর্ণব ইটভাটা থেকে ১৪ হাজার ইট আত্মসাৎ, দুইটি চেক বই চুরি করা উল্লেখযোগ্য।

কিছুদিন পর অর্নব ইটভাটার ম্যানেজার ইটের টাকার জন্য আসলে ঘটনা ফাঁস হয়ে যায়। এরপর পাম্পের হিসাবপত্র পরীক্ষা ২ লাখ ৩০ হাজার টাকা আত্মসাতের ঘটনা ধরে পড়ে। এসময় থেকে ম্যানেজার মনির গা ঢাকা দেয়। অবশেষে ঠিকাদার শফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে প্রতারক মনির সহ ২ জনের নামে থানায় মামলা করেন। পুলিশ গত মঙ্গলবার প্রতারক মনিরকে গ্রেফতার করে ৭দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে সোপর্দ করে।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top