সন্ধ্যা ৭:৫০, বুধবার, ২৬শে এপ্রিল, ২০১৭ ইং
/ ঢাকা / নাসিক নির্বাচন সাখাওয়াত আইভির পাল্টাপাল্টি অভিযোগ
নাসিক নির্বাচন সাখাওয়াত আইভির পাল্টাপাল্টি অভিযোগ
ডিসেম্বর ২০, ২০১৬

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি : নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মেয়রপ্রার্থী সেলিনা হায়াৎ আইভীর বিরুদ্ধে আচরণবিধি লঙ্ঘন এবং নেতাকর্মীদের হুমকি দেওয়ার অভিযোগ করেছেন বিএনপির প্রার্থী সাখাওয়াত হোসেন খান। তবে বিএনপিপ্রার্থীর অভিযোগকে ‘রাজনৈতিক স্ট্যান্টবাজি’ হিসেবে দেখছেন আইভী। শনিবার সকালে ৩, ৪, ৫ নম্বর এবং ১২ নম্বর ওয়ার্ডের মিশনপাড়া এলাকায় গণসংযোগ করেন সাখাওয়াত হোসেন। আওয়ামী লীগের প্রার্থী সেলিনা হায়াৎ আইভী সকালে ২১ নম্বর ওয়ার্ডের বাবুপাড়া, সমরক্ষেত্রসহ বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগ করেন।
গণসংযোগের এক পর্যায়ে ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থীর বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে সাখাওয়াত সাংবাদিকদের বলেন, তিনি আচরণবিধি ভঙ্গ করে বড় বড় প্রতীক লাগিয়েছেন। আমার কর্মীদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে হুমকি দেওয়া হচ্ছে। আচরণবিধি লঙ্ঘন ও আইনশৃঙ্খলা পর্যবেক্ষণে ২৭টি ওয়ার্ডে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট থাকলেও তারা বিষয়টি দেখছেন না বলে অভিযোগ করেন তিনি। নির্বাচনী পরিবেশকে ‘মন্দের ভালো’ হিসেবে উল্লেখ করে সাখাওয়াত প্রশাসন ও নির্বাচন কমিশনের প্রতি সব প্রার্থীর জন্য সমান সুযোগ তৈরির আহ্বান জানান।
সকালে বন্দরের বাবুপাড়া, সমরক্ষেত্রসহ বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগ করেন আওয়ামী লীগ প্রার্থী সেলিনা হায়াৎ আইভী। কোথাও কোথাও তাকে ফুলের পাপড়ি ছিটিয়ে বরণ করে ভোটাররা। এসব স্থানে অঅইভী রিকশায় দাঁড়িয়ে হ্যান্ডমাইকে ভোট প্রার্থণা করেন। এসময় তার বিরুদ্ধে আনা সাখাওয়াতের অভিযোগ প্রসঙ্গে আইভী বলেন, “ওনি তো প্রতিদিন আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ করছেন। আমি তো দুই/ তিন জন মানুষ নিয়ে বের হচ্ছি। লোক যদি আমার পিছনে চলে আসে সেক্ষেত্রে আমার কিছু করার থাকে না। আমি কাকে তাড়াব? আমি লোকজনকে নিজেও সরানোর চেষ্টা করেছি। আমি আচরণবিধি মেনেই কাজ করছি। জনগণ যদি স্বঃতস্ফূর্তভাবে চলে আমার কী করার আছে? আমি মাইকও ব্যবহার করছি না। উনিও ভোট চাইছেন, আমিও ভোট চাইছি। জনগণ যাকে বেছে নেওয়ার নেবে। বিএনপি নেতাকর্মীদের হুমকি দেওয়ার অভিযোগ অস্বীকার করে তিনি বলেন, সম্পূর্ণ মিথ্যা কথা। মিথ্যার আশ্রয় নিয়ে উনি (সাখাওয়াত) পার পাবেন না। আমার কোনো বাহিনী নেই। যদি কেউ হুমকি দিয়ে থাকে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ দেন, ব্যবস্থা নেওয়া হবে; আমার ভাই, সন্তান হলেও আইনের হাতে তুলে দেব। তার তিনি যে অভিযোগ করছেন তা রাজনৈতিক স্ট্যান্টবাজি। প্রার্থীদের আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগের বিষয়ে রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. নুরুজ্জামান তালুকদার বলেছেন, নির্বাচনের পরিবেশ সুষ্ঠু রয়েছে। আচরণবিধি লঙ্ঘনের বিষয়ে কেউ সুনির্দিষ্ট অভিযোগ দিলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আগামী ২০ ডিসেম্বর রাত ১২টায় শেষ হবে নির্বাচনী প্রচার। ২২ ডিসেম্বর অনুষ্ঠেয় এ নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির প্রার্থীসহ সাতজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এছাড়া কাউন্সিলর পদে ১৫৬ ও নারী কাউন্সিলর পদে ৩৮ জন প্রার্থী রয়েছেন।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top