রাত ১১:২৬, শনিবার, ২১শে জানুয়ারি, ২০১৭ ইং
/ Top News / দুজনকে জীবিত ধরতে প্রাণান্তকর চেষ্টা ছিল ডিএমপি কমিশনার
দুজনকে জীবিত ধরতে প্রাণান্তকর চেষ্টা ছিল ডিএমপি কমিশনার
December 25th, 2016


স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানীর আশকোনায় পুলিশি অভিযানের সময় যে দুজনের মৃত্যু হয়েছে, তাদের জীবিত অবস্থায় বের করে আনতে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছে বলে মন্তব্য করেছেন ঢাকার পুলিশ কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া।

বড়দিন উপলে গতকাল রোববার রাজধানীর কাকরাইল গীর্জার নিরাপত্তা পরিস্থিতি পরিদর্শনে গিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি নিহত ও আত্মসমর্পণকারী সবাইকে ‘একটি জঙ্গি পরিবার’ হিসেবে বর্ণনা করেন।


বাংলাদেশে যে জঙ্গি কার্যক্রম চলমান রয়েছে এটা তারই একটি ধারাবাহিকতা। যে দুজন মারা গেছে তাদেরকে জীবিত অবস্থায় উদ্ধারের জন্য আমাদের প্রাণান্তকর চেষ্টা ছিল। যে কারণে আমরা প্রায় ২৪ ঘণ্টা সময় নিয়েছি। গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে আশকোনার ওই জঙ্গি ঘাঁটিতে অভিযান চালানো হয় জানিয়ে পুলিশ কমিশনার বলেন, বাংলাদেশে জেএমবি বা নব্য জেএমবির যারা উগ্রবাদি নাশকতা চালাচ্ছে, তারা নিজেদের আইএস বলে দাবি করলেও এর সমর্থনে তেমন কোনো তথ্য প্রমাণ নেই। এরা প্রকাশ্য কোনো রাজনৈতিক দল না। এদের কোনো সাংগঠনিক কাঠামো নেই।

 তাই গোপনভাবে কে কোন রোল পালন করছে তা এই মুহূর্তে বলা সম্ভব না। আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, এরা প্রকাশ্য কোনো রাজনৈতিক দল না। এদের কোনো সাংগঠনিক কাঠামো নেই। তাই গোপনভাবে কে কোন রোল পালন করছে তা এই মুহূর্তে বলা সম্ভব না। বাংলাদেশে যে জঙ্গিবাদী কার্যক্রম চলমান রয়েছে, এটা তারই একটি ধারাবাহিকতা। আত্মঘাতী নারী জঙ্গিদের বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এর আগেও নারী জঙ্গির সন্ধান আমরা পেয়েছি। জঙ্গি পরিবার যারা- সেখানে পুরুষ-নারী উভয়ই মোটিভেটেড হতে পারে। এটা নতুন কিছু না- একটি জঙ্গি পরিবারের সদস্য এরা। জঙ্গি মুসার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, সে জঙ্গিদের একজন। সে আমাদের তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী। তাকে ধরার জন্য আমরা চেষ্টা করছি। সে বাংলাদেশেই আছে। আমরা চেষ্টা করছি তাকে গ্রেফতার করার জন্য।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :