রাত ২:৪৮, শনিবার, ২১শে জুলাই, ২০১৭ ইং
/ সম্পাদকীয় / ঘনবসতির শহর ঢাকা
ঘনবসতির শহর ঢাকা
মে ২০, ২০১৭

জাতিসংঘের আবাস জরিপ অনুযায়ী, ঢাকা বিশ্বের সবচেয়ে জনবসতিপূর্ণ শহর। বৃটিশ পত্রিকা দ্য গার্ডিয়ান জাতিসংঘের বসতি সম্পর্কিত উপাত্তের বরাত দিয়ে বলেছে, ঢাকার পরেই ঘনবসতি ভারতের বাণিজ্যিক নগরী মুম্বাই। তৃতীয় স্থানে কলম্বিয়ার মেডেলিন, চতুর্থ স্থান ফিলিপাইনের রাজধানী ম্যানিলার।

 

ঢাকা দুনিয়ার সবচেয়ে ঘনবসতির নগরী, এটি যেমন হতাশার তেমন উদ্বেগের। ঢাকার প্রতি বর্গ কিলোমিটারে ৪৪ হাজারের অধিক লোকের বসবাস। তবে এগিয়ে থাকার এ অবস্থান নিয়ে গর্ব করার মতো কিছু নেই। মর্যাদার প্রতীক হিসেবেও কেউ মানতে চাইবে না।


 জাতিসংঘ জনসংখ্যা তহবিল ও বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর তথ্যে গত বছর ঢাকায় প্রতিদিন যুক্ত হওয়া নতুন মুখের সংখ্যা ছিল প্রায় ১ হাজার ৭০০ জন। গ্রাম ও জেলা শহর থেকে কর্মসংস্থানের জন্য আসছেন তারা স্থায়ী হয়ে যাচ্ছেন এই শহরে। ফলে বেড়েই চলেছে ঢাকা ও এর আশে পাশ এলাকার জনসংখ্যা।

উচ্চ শিক্ষার বড় বড় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বেশির ভাগই ঢাকাতেই। যে কারণে সারা দেশ থেকে এখানে আসতে হয় শিক্ষার্থীদের। শিল্প-কারখানাও ঢাকাকে ঘিরে। তাই আসতে হয় শ্রমিক ও নানা পেশার নর-নারীকে। এসব কারণে ঢাকার আয়তন ও লোকসংখ্যা দুই-ই বাড়ছে।


 জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণহীন ভাবে বৃদ্ধি পাওয়ায় ঢাকা ক্রমেই বসবাসের অযোগ্য হয়ে পড়ছে। রাষ্ট্রকে এখন সিদ্ধান্ত নিতে হবে প্রশাসন, শিক্ষা, ব্যবসা-বাণিজ্য, কল-কারখানা, সবকিছু কি ঢাকাতে পুঞ্জিভূত রাখবে, না বিকেন্দ্রিকরণ করবে। এটি রাষ্ট্রের সিদ্ধান্তের ব্যাপার। রাজধানীর ওপর চাপ কমাতে বিভিন্ন কল-কারখানা, বাইরে সরিয়ে নিতে হবে। বর্তমান কারখানাগুলো ইপিজেড বা অন্য শিল্পনগরীতে স্থানান্তর করা প্রয়োজন। পোশাক খাতের কারখানা-গুলোর জন্য আলাদা একটি শিল্প নগরীই গড়ে উঠতে পারে।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top