দুপুর ২:০৪, রবিবার, ২০শে আগস্ট, ২০১৭ ইং
/ আর্ন্তাজাতিক / কৃষ্ণসাগরে রুশ বিমান বিধ্বস্ত ৯২ আরোহীর কেউই বেঁচে নেই
কৃষ্ণসাগরে রুশ বিমান বিধ্বস্ত ৯২ আরোহীর কেউই বেঁচে নেই
ডিসেম্বর ২৫, ২০১৬

করতোয়া ডেস্ক : রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের একটি উড়োজাহাজ ৯২ জন আরোহী নিয়ে কৃষ্ণসাগরে বিধ্বস্ত হয়েছে। বিধ্বস্ত সামরিক বিমানের আর কেউই বেঁচে নেই বলে জানিয়েছে দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়।
রোববার বাংলাদেশ সময় বিকেলে এ তথ্য জানায় তারা। টুপোলেভ টিইউ-১৫৪ প্লেনটি রাশিয়া থেকে সিরিয়ার দিকে যাচ্ছিল। প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানায়, যেখানে বিমানটি বিধ্বস্ত হয়েছে সেই স্থানটি চিহ্নিত করা গেছে। সামরিক বাহিনীর সদস্যদের পাশাপাশি সেনা বাহিনীর একটি গান-বাজনার দল এবং সাংবাদিকদের বহন করছিল প্লেনটি। তবে উড়ার কিছু সময় পরই নিয়ন্ত্রণ কক্ষ থেকে প্লেনের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। তার কিছুক্ষণের মধ্যেই এ ঘটনা ঘটে। এদিকে, অভিযানে সর্বশেষ পর্যন্ত চার মরদেহ উদ্ধারের খবর পাওয়া গেছে। প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র মেজর জেনারেল ইগর কোনাসেঙ্কভের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা স্পুটনিক জানিয়েছে, কৃষ্ণসাগরের অবকাশযাপন কেন্দ্র সোচির উপূকল থেকে ছয় কিলোমিটার দূরে একটি মৃতদেহ পেয়েছেন উদ্ধারকর্মীরা। রিয়া নভোস্তি জানিয়েছে, ওই এলাকার সাগরে প্রায় দেড় কিলোমিটার এলাকায় টুপোলেভ-১৫৪ উড়োজাহাজটির ধ্বংসাবশেষ ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকতে দেখা গেছে। একটি কেএ-৩২ হেলিকপ্টার ও সাতটি নৌযান নিয়ে সেখানে তল্লাশি চালাচ্ছেন উদ্ধারকর্মীরা। বিবিসির খবরে বলা হয়, সোচি থেকে স্থানীয় সময় ভোর ৫টা ২০ মিনিটে উড্ডয়নের কয়েক মিনিট পর উড়োজাহাজটির সঙ্গে নিয়ন্ত্রণ কক্ষের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। ৮৩ জন যাত্রী ও ৯ জন ক্রু নিয়ে উড়োজাহাজটি সিরিয়ার লাটাকিয়ায় যাচ্ছিল। কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে স্পুটনিক জানিয়েছে, উড্ডয়নের সাত মিনিটের মাথায় বিমানটি বিধ্বস্ত হয়। রুশ ফেডারেশনের কাউন্সিল কমিটি অন ডিফেন্স অ্যান্ড সিকিউরিটির চেয়ারম্যান ভিক্তর ওজেরভ নাশকতার সম্ভাবনা নাকচ করে বলেছেন, যান্ত্রিক গোলযোগের কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটে থাকতে পারে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করছেন তারা।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top