সকাল ৮:২৭, সোমবার, ১লা মে, ২০১৭ ইং
/ সম্পাদকীয় / উজানে বাঁধের প্রভাবে নদ-নদী বিলুপ্ত
উজানে বাঁধের প্রভাবে নদ-নদী বিলুপ্ত
ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০১৭

এ দেশে অতীতে হাজারের বেশি নদী ছিল। এখন তা শুধুই ইতিহাস। গবেষকরা বলছেন, স্বাধীনতার পর গত ৪৫ বছরে বাংলাদেশের ছয় শতাধিক নদ-নদী পানির অভাবে শুকিয়ে মরে গেছে। এমনকি অনেক নদীর অস্তিত্বও বিলীন হয়ে গেছে। উজান থেকে নেমে আসা পানির প্রভাবে প্রতিবেশী দেশ ভারত অসংখ্য বাঁধ দেয়ায় এ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। বিশেষজ্ঞদের হিসাব অনুযায়ী গত ৪৫ বছরে দেশে প্রায় ৪৫ হাজার কিলোমিটার নদী পথ বিলুপ্ত হয়ে গেছে।

 এ অবস্থা অব্যাহত থাকলে ২০৫০ সালে দেশে কোন নদী পথের অস্তিত্ব থাকবে না বলে আশংকা তাদের। বাংলাদেশের অর্ধেক নদী শুকিয়ে মরে গেছে- গত ৪৫ বছরে ছিল ১৩০০’র মতো। পানির অভাবে শুকিয়ে এখন তার সংখ্যা নেমে এসেছে ৭০০ তে। ঢাকার আশে পাশের এলাকার মাত্রাতিরিক্ত দুষণ রোধে জরুরী ভিত্তিতে স্বল্প, মধ্য এবং দীর্ঘ মেয়াদী পরিকল্পনা নেয়া দরকার।

 এক থেকে পাঁচ বছরের মধ্যে এগুলি বাস্তবায়ন করা জরুরি। স্বল্প মেয়াদি সুপারিশের মধ্যে আছে নদী-নালা, খাল-বিল, পুকুর, কৃত্রিম লেক বা সমুদ্র সৈকতে ইঞ্জিন চালিত নৌকার পোড়া মবিল, তেল, গৃহবর্জ্য, ময়লা আবর্জনা, প্লাস্টিক বোতল ও পলিথিন সহ অপচনশীল বর্জ্য ফেলা বন্ধ করতে আইনগতমূলক ব্যবস্থা নিতে হবে। এ ছাড়া অবৈধ দখল থেকে নদীকে রক্ষা করতে দখলদারদের বিরুদ্ধে কার্যকর ব্যবস্থা নেওয়া সুপারিশও করা হয়েছে।

 দীর্ঘ মেয়াদি সুপারিশের মধ্যে রয়েছে শিল্প বর্জ্যে দুষণ থেকে নদী রক্ষায় শিল্প কারখানায় ২৪ ঘন্টা ইটিপি চালু রাখা। বিভিন্ন হাওড়-বাওড়, বিল ও পতিত নদী-নালাগুলোর উৎস মুখের বাঁধাগুলো সরিয়ে নিম্ন ভূমিতে পানি প্রবাহ সচল রাখার ব্যবস্থা করা। বিশেষজ্ঞরা বলছেন কাগজে কলমে দেশে বর্তমানে ৩১০টি নদীর অস্তিত্ব রয়েছে। তবে এদের মধ্যে প্রায় ১শত নদীতে বছরের বেশির ভাগ সময়েই পানি থাকে না। এদের মধ্যে অনেক নদী ইতিমধ্যে বিলীন হয়েছে।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top