দুপুর ২:৪৪, মঙ্গলবার, ২৩শে মে, ২০১৭ ইং
/ সম্পাদকীয় / ইয়াবার সর্বনাশা থাবা
ইয়াবার সর্বনাশা থাবা
মে ১৭, ২০১৭

মহামারীর মতো ছড়িয়ে পড়েছে নীরব ঘাতক ইয়াবা। টেকনাফ থেকে শুরু করে দেশের অপরপ্রান্ত তেঁতুলিয়া পর্যন্ত বড় বড় শহর ছাড়িয়ে গ্রামগঞ্জের অজপাড়াগাঁয়ে হাত বাড়ালেই মিলছে ইয়াবা। স্কুল-কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রী, তরুণ-তরুণী শুধু নয়, ব্যবসায়ী, চাকরিজীবীসহ সমাজের প্রায় সব শ্রেণির মানুষই এখন এই নেশায় আসক্ত।

 ইয়াবার ভয়াবহ ধোঁয়া এ রকম আগামী প্রজন্মকে ধ্বংসের মুখোমুখি দাঁড় করিয়েছে। ইয়াবা পাচারকারীদের কঠোর শাস্তি দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। সমুদ্র সৈকত কক্সবাজারে এক সমাবেশে শেখ হাসিনা বলেছেন, মাদক একটি পরিবারকে ধ্বংস করে দেয়। একজন মানুষকে যখন মাদক সেবন করে, সে তার চিন্তাশক্তি হারায়। মাদকের ছোবলে জীবন ধ্বংস হয়ে যায়।

 প্রধানমন্ত্রীর এ বক্তব্যের সঙ্গে আমরা একমত। আমরা বিভিন্ন সময়েই পত্র- পত্রিকায় প্রকাশিত প্রতিবেদনে ইয়াবার যে চিত্র দেখছি তাতে স্পষ্ট যে, ইয়াবার দৌরাত্ম্য ক্রমেই ভয়াবহ হয়ে উঠছে। মাত্র ৫ বছর আগেও দেশে ইয়াবা ব্যবসায়ীদের সংখ্যা ছিল ৫৫৪। এ সংখ্যা এখন দ্বিগুণের বেশি বেড়ে ১ হাজার ২২৫-এ দাঁড়িয়েছে। বিষয়টি উদ্বেগজনক বটে।

 ইয়াবা ব্যবসায়ীদের এ তালিকা খোদ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের করা, সবার নাম ঠিকানা ও আইন শৃঙ্খলা সংস্থার নখদর্পণে। তারপরও অজানা কারণে ব্যবস্থা নেয়া হয়নি এদের বিরুদ্ধে। আমরা সরকারকে বলতে চাই, মাদক চক্রের গডফাদারদের আইনের আওতায় এনে শাস্তি নিশ্চিত করুন। এ ভয়াবহ আগ্রাসন ঠেকাতে আরো কৌশলী ও কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করতে হবে। তার জন্য সরকার ও সংশ্লিষ্ট সব বিভাগের সম্মিলিত কার্যকর উদ্যোগ গ্রহণের বিকল্প নেই।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top