সকাল ৯:৫৩, রবিবার, ২০শে আগস্ট, ২০১৭ ইং
/ আর্ন্তাজাতিক / অস্ট্রেলিয়ায় অস্ত্র জমাদানের হিড়িক
অস্ট্রেলিয়ায় অস্ত্র জমাদানের হিড়িক
আগস্ট ৮, ২০১৭

করতোয়া ডেস্ক : অস্ট্রেলিয়ায় অবৈধ আগ্নেয়াস্ত্র জমা দেওয়ার হিড়িক পড়েছে। অস্ত্র জমা দেওয়ার শর্তে জাতীয়ভাবে সাধারণ ক্ষমা ঘোষণার পর নিউ সাউথ ওয়েলসে অঙ্গরাজ্যে কেবল এক মাসেই ৬ হাজারেরও বেশি বন্দুক সমর্পণ করা হয়েছে। মঙ্গলবার (৮ আগস্ট) অঙ্গরাজ্যটির পুলিশ জমাকৃত অস্ত্রের পরিসংখ্যান সম্পর্কে নিশ্চিত করেছে। তবে অন্য রাজ্য ও এলাকাগুলোতে কী পরিমাণ অবৈধ অস্ত্র জমা পড়েছে তা জানা যায়নি। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে বেশ কয়েকবার সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয়েছে অস্ট্রেলিয়া। এছাড়া ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বর থেকে অন্তত ১৩টি হামলার প্রচেষ্টা নস্যাৎ করে দেওয়া হয়। গত জুনে অস্ট্রেলীয় সরকার জানায়, রাস্তায় রাস্তায় ২ লাখ ৬০ হাজার অবৈধ অস্ত্র ছড়িয়ে পড়েছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

জঙ্গি হামলার হুমকি এবং বন্দুকধারীর হামলার ঘটনা বেড়ে যাওয়ার প্রেক্ষাপটে এই অস্ত্রগুলোকে ঝুঁকিপূর্ণ বলে বিবেচনা করা হচ্ছিল। ১ জুলাই সরকারের পক্ষ থেকে ঘোষণা দেওয়া হয়, অনিবন্ধনকৃত ও অনাকাঙ্ক্ষিত আগ্নেয়াস্ত্র সমর্পণ করা হলে ওই অস্ত্র বহনকারীকে জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি করা হবে না। অবৈধ অস্ত্র জমা দিতে ৩০ সেপ্টেম্বরের সময়সীমা বেঁধে দেওয়া হয়। বলা হয়, নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে অনিবন্ধনকৃত অস্ত্র জমা না দেওয়া হলে ২,২২,০০০ মার্কিন ডলার জরিমানা কিংবা ১৪ বছরের জেল হতে পারে।

 গতকাল মঙ্গলবার নিউ সাউথ ওয়েলস পুলিশ জানায়, এ পর্যন্ত তাদের কাছে ১৭০০টি রাইফেল, ৪৬০টি শটগান এবং প্রায় ২০০ হ্যান্ডগান জমা পড়েছে। আর নিবন্ধনের জন্য জমা দেওয়া হয়েছে কয়েক হাজার অস্ত্র। সমর্পণকৃত অস্ত্রগুলোর মধ্যে রয়েছে-চারটি অ্যাসল্ট রাইফেল, হাতে তৈরিকৃত একটি ৯ এমএম মেশিনগান, একটি কোল্ট এআর-১৫ রাইফেল, এম১ কার্বাইন এবং একটি .৪৪ ক্যালিভার ম্যাগনাম রিভলভার। ডিটেকটিভ চিফ ইন্সপেক্টর ওয়েন হফম্যান বলেন, ‘আমাদের কাছে সামুরাই তলোয়ার, ছুরি এবং কিছু শান দেওয়া অস্ত্রসহ ১১০টিরও বেশি নিষিদ্ধ অস্ত্র জমা পড়েছে।

’ অস্ট্রেলিয়ায় ১৯৯৬ সালের পর এবারই প্রথম অবৈধ অস্ত্র মালিকদের জন্য সাধারণ ক্ষমা ঘোষনা করা হলো। ১৯৯৬ সালে পোর্ট আর্থারে বন্দুকধারীর হামলায় ৩৫ জনের প্রাণহানির পর সরকার অস্ত্র জমা নিতে সাধারণ ক্ষমা ঘোষণা করেছিল। অস্ত্র মালিকদের ক্ষতিপূরণও দেওয়া হয়েছিল। তখনকার প্রধানমন্ত্রী জন হাওয়ার্ড অস্ট্রেলিয়ায় কঠোর অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ আইন চালু করেছিলেন।

এই বিভাগের আরো খবর



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top