সকাল ১০:২৭, সোমবার, ১লা মে, ২০১৭ ইং
/ আইন-আদালত / ‘অভিমানে’ ২ সন্তান হত্যার পর মা আনিকার আত্মহত্যা
স্বামীর সাথে ঝগড়া হওয়ায়
‘অভিমানে’ ২ সন্তান হত্যার পর মা আনিকার আত্মহত্যা
জানুয়ারি ১১, ২০১৭

রাজধানীর মিরপুর দারুস সালামে দুই শিশুসন্তান ও তাদের মায়ের মরদেহের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। ঢাকা মেডিকেল কলেজ মর্গে  বুধবার  দুপুর দেড়টায় শুরু হয়ে ময়নাতদন্ত দুইটার দিকে শেষ হয়। অন্যদিকে এ ঘটনায় দুই শিশুর বাবা সেলুন কর্মচারী শামীম হোসেনকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ। এ ঘটনায় মামলা দায়ের হয়েছে।  

ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক ঢামেক ফরেনসিক বিভাগের প্রভাষক ডা. প্রদীপ বিশ্বাস জানান, ‘বাচ্চাদুটির শ্বাসনালী কেটে গিয়েছিল। এ কারণেই তাদের মৃত্যু হয়। ধারণা করা হচ্ছে- তাদের মা বাচ্চাদুটিকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে হত্যার পর নিজেও আত্মহত্যা করেছে।’ এর আগে গত মঙ্গলবার দুপুরে টিনশেডবাড়ির একটি কক্ষের দরজা ভেঙে ভিতর থেকে  মা আনিকা (২০), তার মেয়ে শামিমা (৫) ও ছেলে আব্দুল্লাহর (৩) লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। আনিকার লাশ ফাঁস দিয়ে জুলানো ছিল। আর দুই শিমুর মৃতদেহ জবাই করা অবস্থায় খাটের উপর ছিল বলে পুলিশ জানায়। পুলিশ জানায়, অনিকার স্বামী শামীম ঘটনার সময় বাসায় ছিলেন না। পরে তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মঙ্গলবার রাতে থানায় নেওয়া হয়। ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) মিরপুর বিভাগের সহকারী কমিশনার (দারুস সালাম  জোন) সৈয়দ মামুন মোস্তফা বলেন, মা ও তার দুই সন্তানের লাশ উদ্ধারের ঘটনায় এখন পর্যন্ত মামলা হয়নি। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদে ওই নারীর স্বামী শামীম হোসেনকে  রাতে দারুস সালাম থানায় আনা হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে নিজের কোনো সম্পৃক্ততা নেই বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে দাবি করেছেন শামীম। তার ভাষ্য, সকালে স্ত্রীর সঙ্গে তার সামান্য কথা-কাটাকাটি হয়। এরপর বাইরে চলে যান তিনি।

বিকালে বাসায় ফিরে সন্তানদের গলা কাটা লাশ ও স্ত্রীর মরদেহ দেখেন। ডিএমপির মিরপুর বিভাগের এই সহকারী কমিশনার বলেন, শামীমের বক্তব্যের সত্যতা যাচাই করা হচ্ছে। প্রয়োজনে অন্য স্বজনদেরও জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে। সবকিছু খতিয়ে দেখে পরবর্তী আইনগত পদক্ষেপ নেওয়া হবে। পুলিশের ধারণা, শামীম হোসেনের প্রতি অভিমান করে তার স্ত্রী দুই সন্তানকে হত্যা করে নিজে আত্মহত্যা করেছেন। শামীম সেলুন কর্মচারী। দারুস সালাম থানার ছোট দিয়াবাড়িতে টিনশেডের একটি কক্ষে সপরিবারে ভাড়া থাকছিলেন তিনি।

ঘটনায় মামলা
এদিকে রাজধানীর দারুস সালামে দুই সন্তানকে হত্যার পর মায়ের আত্মহত্যার ঘটনায় মামলা হয়েছে। মামলা নম্বর ১১। আত্মহত্যাকারী আনিকার (২০) মা নাদিরা বেগম বাদী হয়ে বুধবার (১১ জানুয়ারি) দুপুরে দারুস সালাম থানায় মামলাটি করেন। দারুস সালাম থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রফিকুল আলম  বিষয়টি জানান। মামলায় আত্মহত্যায় প্ররোচণার অভিযোগে নিহত আনিকার স্বামী শামীম হোসেনকে (৩৩) আসামি করা হয়েছে।

 



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top